আহত রোগীকে চিকিৎসা না দিয়ে সরকারী ডাক্তারের দাবী ৫ হাজার টাকা!! (ভিডিওসহ)

প্রকাশঃ জুলাই ২১, ২০১৭ সময়ঃ ৩:০৯ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:৪৫ অপরাহ্ণ

মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় আহত এক কিশোরের পায়ে সেলাই করে দেওয়ার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের একজন ডাক্তার ওই রোগীর কাছে ৫ হাজার টাকা দাবি করেছেন। অভিযুক্ত ওই ডাক্তারের নাম সপ্তম সরকার।

রোগীর কাছে অন্যায় অর্থ দাবির বিষয়ে রোগী ও তার স্বজনদের বক্তব্য, অভিযুক্ত ডাক্তারের বিব্রতকর চেহারার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেছেন ইমরুল কায়েস নামের এক ব্যাক্তি।

ভিডিওর সাথে দেওয়া পোস্টে ইমরুল কায়েস লিখেছেন, সরকারি হাসপাতালে পায়ে সেলাইয়ের জন্য একজন সরকারী ডাক্তার ৫ হাজার টাকা দাবি করায় হতবাক হয়ে পড়ে রোগীর স্বজনরা। উপায় না পেয়ে ৪ হাজার টাকা জোগাড় করে তারা। যেখানে ১০ টাকার টোকেনে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়, সেখানে ৪ হাজার টাকায়ও মন গলেনি নিষ্ঠুর ও নৈতিকতা হারানো ডাক্তার সপ্তম সরকারের। ৫ হাজার টাকার ১টাকা কমেও সেলাই করবেন না বলে জানান তিনি। টাকা না পেয়ে রোগীকে পায়ে সেলাই না দিয়েই ভর্তি করিয়ে দেন তিনি।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, কেউ একজন টাকা চাওয়ার ব্যাপারে ওই ডাক্তারকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি কোনো জবাব দিতে পারছেন না। এসময় তাকে বিব্রত দেখাচ্ছিল। পরে উপস্থিত একজন ওই ডাক্তারের সামনেই তাদের কাছে অতিরিক্ত অর্থ চাওয়ার অভিযোগ করেন ওই ডাক্তারের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, এই হাসপাতালে তার পরিচিত একজন ডাক্তারও সপ্তম সরকারকে ওই কিশোরের পায়ে সেলাই করে দেওয়ার অনুরোধ করেন। কিন্তু তিনি সেটিও রাখেননি।

খবর পেয়ে ইমরুল কায়েস সহ অন্যান্য সাংবাদিকরা হাসপাতাল গিয়ে অনেক অনুরোধে পরও মন গেলেও মন গলেনি ওই ডাক্তারের। পরে কক্সবাজারের সরকারি হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শাহীন আবদুর রহমানকে বিষয়টি জানালে তিনি ঐ রোগীর পায়ে দ্রুত সেলাই করার নির্দেশ দেন এবং ডাক্তার সপ্তম সরকারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান।

ইমরুল কায়েস লিখেছেন, এই ধরনের কিছু চিকিৎসকের কারনে আজ দেশের চিকিৎসকরা প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। মহান এই পেশাটিকে কলঙ্কিত করার জন্য ডাক্তার সপ্তম সরকারের শাস্তির দাবিও করেন তিনি।

সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য রোগীর কাছে ৫ হাজার টাকা দ…

সরকারী হাসপাতালে পায়ে সেলাইয়ের জন্য একজন সরকারী ডাক্তার ৫ হাজার টাকা দাবি করায় হতভাগ হয়ে পড়ে রোগীর স্বজনরা। উপায় না পেয়ে ৪ হাজার টাকা জোগাড় করে তারা। যেখানে ১০ টাকা টোকেনে সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়, সেখানে ৪ হাজার টাকায়ও মন গলেনি নিষ্ঠুর ও নৈতিকতা হারানো ডাক্তার সপ্তম সরকারের। ৫ হাজার টাকার ১টাকা কমেও সেলাই করবেনা বলে জানান তিনি। টাকা না পেয়ে রোগীকে পায়ে সেলাই না দিয়েই ভর্তি করিয়ে দেন তিনি।ভিডিও কার্টেসি: ইমরুল কায়েসবিস্তারিত: http://bit.ly/2ugAzAO#Bangladesh #Priyo #Health #Medical

Posted by Priyo.com on Thursday, July 20, 2017

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

অক্টোবর ২০১৭
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
0cc0