কী ভুল ছিল পারগালী ইব্রাহিমের?

প্রকাশঃ জানুয়ারি ১০, ২০১৭ সময়ঃ ৮:৩৯ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ

শারমিন আকতার:

pargali-ibrahim-pasa

ইব্রাহিম পাশা, পারগার এক সাধারণ জেলের সন্তান হলেও নিজ যোগ্যতায় সুলতান সুলাইমানের রাজ্যের অতি গুরুত্বপূর্ণ উজিরে আজম পদে বসার সৌভাগ্য অর্জন করেছিলেন। তিনি একজন পরাক্রমশালী যোদ্ধাও বটে। ভালবাসার পরীক্ষায়ও সফল হয়েছিলেন। বিয়ে করেছিলেন তৎকালীন সময়কার ক্ষমতাধর সাম্রাজ্য দেবলেতে আলিয়ার শাহজাদী ও সুলতান সুলাইমানের বোন হেতিজা সুলতানকে। আপাত দৃষ্টিতে সবকিছুই ছিল তাঁর হাতের মুঠোই। স্বয়ং সুলতান সুলাইমানের সুনজরে থাকার কারণে কেউ তাঁর ক্ষতি করেও সফল হতে পারছিল না। সুলতান সুলাইমানের দেওয়া সর্বশেষ আস্থার পুরস্কার হিসেবে পেয়েছিলেন সাম্যাজ্যের সমস্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা; রাজার উপস্থিতিতে এবং অনুপস্থিতিতে।

এ সমস্ত ক্ষমতা ইব্রাহিমকে চরম অহংকারী ও অন্ধ করে তুলেছিল। যার পরিণতিতে এতদিনের বন্ধু, সহচর সুলতান সুলাইমানের নির্দেশে ঘুমন্ত ইব্রাহিমকে অসহায় অবস্থায় মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। বিচক্ষণ ও বুদ্ধিমান শাসক সুলতান সুলাইমানের ছেলেবেলার সহচর অতি প্রিয় বন্ধু ও উজিরে আজম পারগালী ইব্রাহিম অবশেষে ষড়যন্ত্রের জালে ফেঁসে গেলেন। কিন্তু এত জ্ঞানী, বহু ভাষাবিদ, দক্ষ যোদ্ধা ও পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সাম্রাজ্যের একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তারকারী ইব্রাহিমেরও কিছু মারাত্মক অমার্জনীয় অদূরদর্শীসুলভ ভুল ছিল; যা তাঁকে নৃশংস মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছিল:

১. বদ মেজাজ ইব্রাহিমের বিশেষ এক দুর্বল দিক ছিল।

২. কোনোকিছু বিস্তারিত না বলার কারণে শত্রুপক্ষ সবসময় সুযোগ পেয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

৩. বিনয়ী, নম্র ও বুদ্ধিমান ইব্রাহিম ক্ষমতার চূড়ায় পৌঁছে অন্ধ অহংকারী হয়ে উঠে।

৪. খাস দাসী থেকে সুলতানের সম্রাজ্ঞী বনে যাওয়া হুররাম সুলতানকে নিজের থেকে অপেক্ষাকৃত দুর্বল মনে করাটাই তার সবচেয়ে বড় ভুল ছিল।

৫. সহচর, বন্ধু ও সাম্রাজ্যের সুলতান সুলাইমান থেকে বেশকিছু সত্য ঘটনা লুকিয়ে রাখার ফলে দুজনের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি হতে থাকে। যার পরিণতি এই মৃত্যু।

৬. নিজের অন্যতম শত্রুকে কঠোর নজরদারীতে না রাখাটাও তাঁর মারাত্মক ভুল ছিল।

৭. ক্ষণিক আবেগে নারীঘটিত সমস্যায় জড়িয়ে পড়ে নিজের স্ত্রীর সাথে এবং সুলতান সুলাইমানের কাছে অবিশ্বাসের পাত্র হওয়ার কারণে ইব্রাহিমের চলার পথ কঠিন হয়ে উঠে ।

৮. অটোম্যান সাম্রাজ্যের শাহজাদী ও ইব্রাহিমের স্ত্রী হেতিজা সুলতানের পরামর্শকে অগ্রাহ্য করা ।

৯. সর্বশেষ নিজেকে সুলতাল সুলাইমানের চেয়ে যোগ্য মনে করা এবং তা প্রকাশ্যে দেখাতে গিয়ে একের পর এক ভুল করে ফেলা এবং এসব কারণে সুলতানের অবিশ্বাসের পাত্র হওয়ার শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ জারি হয়। 

সুলতান সুলাইমানও অসামান্য এক ভুল করেছিলেন ইব্রাহিমকে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে। তিনি হারিয়েছিলেন এক পরম বন্ধুকে, পরামর্শদাতাকে এবং সামাজ্যের শক্তিশালী এক যোদ্ধাকে। ইব্রাহিমের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে অটোম্যান সাম্রাজ্যের পতন শুরু হয়। 

শিক্ষণীয়:  রেগে থাকা অবস্থায় কখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত নয়। জন স্যাকলিং এর মতে, ঠান্ডা মাথায় একটি সিদ্ধান্ত, উত্তেজিত অসংখ্য মাথার সিদ্ধান্তের চেয়ে উত্তম।  

 

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

জুন ২০১৭
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« মে    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
0cc0