তিনদিন ধরে কার্যালয়ে আসেন না কুবি ভিসি; শিক্ষকদের আন্দোলন অব্যাহত

প্রথম প্রকাশঃ অক্টোবর ১৭, ২০১৭ সময়ঃ ৮:৪০ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৮:৪০ অপরাহ্ণ

তানভীর সাবিক, কুবি প্রতিনিধি:

 

গত তিন দিন ধরে নিজ কার্যালয়ে আসছেন না কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো: আলী আশরাফ। গত দু’দিন ধরে শিক্ষক নেতাদের সাথে আলোচনায় বসার সময় দিয়েও তা বাতিলের জেরে ভিসির কার্যালয়ে গত সোমবার বিকালে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন ক্ষুব্ধ শিক্ষক নেতারা। এদিকে ভিসি বিভিন্ন সময়ে আর্থিক অনিয়মসহ দুর্নীতি করেছেন এমন অভিযোগে ২য় দিনের মত কর্মসূচী অব্যাহত রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষক সমিতি ও ‘অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়’ নামক শিক্ষক জোট। মঙ্গলবারও শিক্ষকদের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচী পালন করতে দেখা যায়।

জানা যায়, ৮ম জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী সকল ধরনের ডেপুটেশন ভাতা বাতিল করা হলেও ভিসি প্রতি মাসে নিয়মিত ১৫ হাজার ২৯৮ টাকা করে নেন এমন আর্থিক অভিযোগসহ মোট ১৪ দফা দাবিতে ভিসি বিরোধী আন্দোলনে নেমেছে শিক্ষকরা। ইভিনিং এমবিএ প্রোগ্রাম থেকে অর্ডিন্যান্স বর্হিভূত ভাবে ২৫ হাজার টাকা প্রতি মাসে উত্তোলন, ভিসির গাড়ির জন্য বরাদ্দকৃত জ্বালানীর বাহিরেও অতিরিক্ত ১০ হাজার টাকা অগ্রিম নেয়া, ভারপ্রাপ্ত ডীন হিসেবে বিধি বর্হিভূতভাবে দায়িত্ব ভাতা গ্রহনসহ মোট ১৪ দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচী পালন করছে শিক্ষকরা।

আন্দোলনের নেতৃত্বে থাকা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান দাবি করেন ভিসি শিক্ষকদের সাথে দেখা করবেন বলেও তিন দিন ধরে কালক্ষেপন করেও শিক্ষকদের সাথে দেখা করছে না। তিনি বলেন আমরা উপাচার্যের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরেছি। ভিসি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে দুর্নীতির রাজত্ব কায়েম করেছে। ভিসিকে আর কার্যালয়ে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না উল্লেখ করে তিনি ভিসির বিচার দাবি করেন।

সার্বিক বিষয়ে ভিসি অধ্যাপক ড. মোঃ আলী আশরাফের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন উঠাননি।

উল্লেখ্য ভিসি বিশ্ববিদ্যালয়কে দুর্নীতির অভয়ারণ্য করেছেন এমন অভিযোগে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিচার ও উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে সোমবার মানববন্ধন করে শিক্ষকরা। মানববন্ধন শেষে উপাচার্যের কার্যালয়ে তালা লাগিয়ে দেয় শিক্ষক জোট।

প্রতিক্ষণ/এডি/শাআ

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

0cc0