দাপুটে জয় বাংলাদেশের

প্রথম প্রকাশঃ মে ১৯, ২০১৭ সময়ঃ ৯:৫৬ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:৪২ অপরাহ্ণ

বোলিংটা দারুণ হয়েছে। ব্যাটিং হলো তার চেয়েও দুর্দান্ত। ত্রিদেশীয় সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে বেঁধে দেওয়া ১৮২ রানের লক্ষ্যকে মামুলি বানিয়ে সৌম্য সরকার, তামিম ইকবাল ও সাব্বির রহমান ২৭.১ ওভারেই দলকে পৌঁছে দিয়েছেন জয়ের বন্দরে। আইরিশদের হারাল ৮ উইকেটে। সিরিজে প্রথম জয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের পক্ষে সৌম্য সরকার ৬৮ বলে ৮৭ রানে অপরাজিত থাকেন। শুরু থেকে আক্রমণাত্মক খেলা সৌম্য সরকার তুলে নেন দারুণ এক ফিফটি। জর্জ ডকরেলের বলে চার হাঁকিয়ে ৪০ বলে মাইলফলক স্পর্শ করেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ফিফটি করতে ৫টি চারের সঙ্গে দুটি ছক্কা হাঁকান সৌম্য।

উড়ন্ত সূচনা করে বাংলাদেশের দুই টাইগার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। ১৩ ওভারে ৫ বলে দলীয় ৯৫ রানে আউট হন তামিম ইকবাল (৪৭)। এরপর সাব্বির রহমানের সঙ্গে জুটি গড়ে দলকে জয়ের বন্দরে এগিয়ে যান সৌম্য সরকার। সাব্বির রহমান ৩৪ বলে ৩৫ রান করে আউট হন।

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারের আগেই অলআউট হয় আইরিশ ব্যাটসম্যানরা। বাংলাদেশি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৪৬.৩ ওভারে ১৮১ রানেই গুটিয়ে যায় আয়ারল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনআপ।

আইরিশ ব্যাটসম্যানদের সবচেয়ে বেশি ভুগিয়েছে কাটার মাস্টার খ্যাত মুস্তাফিজ। ত্রিদেশীয় সিরিজে দারুণ ফর্মে আছেন মুস্তাফিজন। মুস্তাফিজের কাটার, স্লোয়ার ও বাউন্সারের যেন কোনো জবাব জানা ছিলনা আইরিশ ব্যাটসম্যানদের কাছে। বাঁহাতি এ পেসার ৯ ওভারে ২৩ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। দেশের বাইরে ওয়ানডেতে এই প্রথম ৪ উইকেট পেলেন কাটার মাস্টার।

বাংলাদেশের তৃতীয় ম্যাচে নিজের প্রথম ওভারেই মুস্তাফিজ তুলে নেন স্টারলিংয়ের উইকেট। দ্বিতীয় স্পেলেও তিনি ফেরান আয়ারল্যান্ডের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান নিয়াল ও’ব্রায়েনকে (৩০)। থার্ড ম্যানে তামিম ইকবালের সহজ ক্যাচ হন আইরিশ ব্যাটসম্যান। পরের বলে কেভিন ও’ব্রায়েনের উইকেটটি পেতে পারতেন মোস্তাফিজ। কয়েক ইঞ্চির জন্যে সাব্বির রহমান ক্যাচটি লুফে নিতে পারেননি। বাংলাদেশ আউটের আবেদন করলে টিভি রিপ্লেতে দেখা গেছে বল মাটিতে লেগে সাব্বিরের হাতে গেছে। তবে শেষ পর্যন্ত ৩১.৪ ওভারে আর ব্যর্থ হননি। কেভিনকে তালুবন্দি করেন মোসাদ্দেক হোসেন। কেভিন বিদায় নেন ১০ রানে। এক ওভার বিরতি দিয়ে ফের উইকেট নেন মোস্তাফিজুর। বিতর্কিত ভাবে দেওয়া এই আউটে ক্যাচ নেন মুশফিকুর রহিম।

এর আগে অভিষেক ওয়ানডেতে প্রথম ওভারেই উইকেট তুলে নেন সানজামুল। এড জয়েসকে হাফসেঞ্চুরি বঞ্চিত করেছেন এ স্পিনার। ব্যক্তিগত ৪৬ রানে লং অনে তামিম ইকবালকে ক্যাচ দেন আয়ারল্যান্ডের এ ব্যাটসম্যান। সানজামুল ৫ ওভারে ২২ রান দিয়ে ২ উইকেট লাভ করেন।

এই সিরিজে বাকিরা সাফল্য পেলেও নিষ্প্রভ ছিলেন সাকিব। কিন্ত এই ম্যাচ দিয়ে ফিরে পেয়েছেন নিজেকে। ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রথম উইকেট পান সাকিব আল হাসান। নিজের দ্বিতীয় ওভারে অ্যান্ডি ব্যালবার্নিকে (১২) বোল্ড করেন তিনি। মোসাদ্দেক হোসেন তার আগে নেন আয়ারল্যান্ডের দ্বিতীয় উইকেট। আগের ওভারেই উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডকে শর্ট এক্সট্রা কভারে জীবন দিয়েছিলেন মোসাদ্দেক। সহজ ক্যাচ ছেড়ে দিয়ে মাশরাফি মুর্তজাকে উইকেটবঞ্চিত করার পর নিজেই সেই আক্ষেপ কাটান তিনি। ক্রিজে শক্তিশালী হয়ে ওঠা আয়ারল্যান্ড অধিনায়ককে ফিরতি ক্যাচ বানিয়েছেন মোসাদ্দেক। ২৫ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ে ২২ রানে আউট হন পোর্টারফিল্ড।

শুক্রবার টস জিতে ফিল্ডিং নিয়ে শুরু থেকে দারুণ খেলছে বাংলাদেশ। স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ওভারে রুবেল হোসেন করেন মেডেন। আর পরের ওভারে মোস্তাফিজের বলে উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড। তাদের কোনও রান না দিয়ে উইকেট তুলে নেন বাঁহাতি পেসার।

প্রতিক্ষণ/এডি/সাই

 

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

0cc0