দেশের ইমেজ নষ্ট হচ্ছে মুশফিকের মন্তব্যে: পাপন

প্রথম প্রকাশঃ অক্টোবর ৯, ২০১৭ সময়ঃ ৭:৫৮ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৭:৫৮ অপরাহ্ণ

দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার আগে থেকেই একের পর এক মন্তব্য করে বিতর্কের জন্ম দিচ্ছিলেন বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। প্রোটিয়া মিশনে বিমানে ওঠার আগেই সাকিবের বিশ্রাম নিয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘আমি তো আর এত বড় ক্রিকেটার নই যে, বিশ্রাম চাইব।’

এরই ধারাবাহিকতায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত ম্যানেজমেন্টের, সঙ্গে বোলারদের কঠোর সমালোচনা করেন মুশফিক। সর্বশেষ ব্লুমফন্টেইন টেস্টে টস জিতে ফিল্ডিং নেয়া এবং তার ফিল্ডিংয়ের জায়গা ঠিক করে দেয়া নিয়ে ম্যানেজমেন্টের ওপর দোষ চাপিয়ে আবারও আলোচনায় আসেন তিনি। তবে দেশের বাইরে মুশফিকের একের পর এক এমন মন্তব্যে দেশের ইমেজ নষ্ট হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

আজ (সোমবার) বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির এক অনুষ্ঠান শেষে সংবাদ সম্মেলনে মুশফিকের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তোলেন বিসিবি বিগ বস পাপন।

মুশফিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ উত্থাপন করতে গিয়ে পাপন সাংবাদিকদের বলেন, ‘তবে একটা জিনিস ঠিক, তার এভাবে মন্তব্য বাইরে গিয়ে করা- একটা কোচের কি হলো, সেটা আমার জানার দরকার নেই। ম্যানেজমেন্টের কি হলো তার দরকার নেই- এটা কিন্তু দেশের ইমেজের ব্যাপার। এটা কিন্তু দেশের ইমেজটাকে নষ্ট করে।’

মুশফিককে একটু নিজের মধ্যে কথা রেখে দেয়া টাইপ ছেলে বলেও মন্তব্য করেন বিসিবি বিগ বস। টেস্ট অধিনায়ক সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘ও (মুশফিক) অন্যদের চেয়ে একটু আলাদা। আমি নেগেটিভ বলছি না। ও একটু নিজের মধ্যে বেশি রাখে, প্রকাশ করে কম। এখন ধরেন, যারা নাকি একটু নিজের মধ্যে চেপে থাকে, প্রকাশ করে কম তাদের মনের মধ্যে কি আছে, তা বোঝা কিন্তু একটু কঠিন। ওরা আবার যখন বলে, তখন এমন সব কথা বলে যেটা নাকি আমরা আগে থেকে কেউ চিন্তাই করতে পারি না।’

মুশফিক সম্পর্কে বিস্তারিত বলতে গিয়ে উদাহরণও টানেন পাপন। তিনি বলেন, ‘উদাহরণস্বরুপ বলা যায়, পৃথিবীতে এমন কোন অধিনায়ক নাই যে বলবে টসে জেতাটা আমার জন্য ভুল ছিল। এই ধরনের কথা বলা, একটা ক্যাপ্টেন তো দূরে থাক, আমি চিন্তাই করতে পারি না কেউ এভাবে বলবে। এটা কোন উত্তর হতে পারে? সবাই চাইবে, আমি টসে জিতবো। টস জিতে সবচেয়ে ভাল যেটা সিদ্ধান্ত হবে, আমি সেটা আমি নিবো। এই যে কথাটা, এতে তো বোঝা যাচ্ছে কিছু তো একটা সমস্যা আছে। এটা তো আগেই বুঝেছি।’

মুশফিক কোন একটা বিষয় নিয়ে অস্বস্তিতে আছে বলেও মনে করছেন বিসিবি প্রধান। তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মনে হচ্ছে না, এটা অধিনায়কত্ব নিয়ে সমস্যা। কিছু একটা ওর মধ্যে কাজ করছে। কিছু একটা অস্বস্তির মধ্যে রয়েছে সে। এটা হতে পারে ম্যানেজমেন্ট, কোচও হতে পারে, আমরাও হতে পারি কিংবা অন্য কেউ হতে পারে। আমি জানি না। ওই জিনিসটা মনে হয় বের করা দরকার।’

তবে মুশফিক দেশে ফিরলেই সব সমস্যার অবসান হবে বলে মনে করছেন পাপন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সিরিজ শেষ হলে ও দেশে ফিরুক, কথা বলি। আরও নুসন্ধান করি আমারা। এরপর সমাধানের চেষ্টা করবো। তারপর যদি দেখি, কোন কিছুতেই কিছু হচ্ছে না এবং অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিলে ওর জন্যও ভাল হবে, তখন দরকার হলে সিদ্ধান্ত নিবো। কিন্তু এখন কোন সিদ্ধান্ত নেইনি।’

মুশফিকুর রহীম জানিয়েছেন ম্যানেজম্যান্টের সিদ্ধান্তেই ম্যাচ পরিচালিত হয়, তামিম ইকবালও এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত ম্যানেজমেন্টেরেই। তবে বিসিবি প্রধান তাদের এই দাবিকে সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়ছে। ফলে বিষয়টি নিয়ে বেশ বড় একটি ধুম্রজালও তৈরি হয়েছে সবার মধ্যে।

প্রতিক্ষণ/এডি/শাআ

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

0cc0