নোবেল শান্তি পুরস্কার জিতে নিল পরমাণু অস্ত্রবিরোধী সংগঠন

প্রকাশঃ অক্টোবর ৬, ২০১৭ সময়ঃ ৭:৪৩ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৭:৪৩ অপরাহ্ণ

অনেক জল্পনার পর অবশেষে এ বছরের নোবেল শান্তি পুরস্কার জিতে নিল পরমাণু অস্ত্রবিরোধী সংগঠন ইন্টারন্যাশনাল ক্যাম্পেইন টু অ্যাবোলিশ নিউক্লিয়ার ওয়েপনস (আইসিএএন) বা আইক্যান। পরমাণুমুক্ত বিশ্ব গড়ার প্রচারাভিযানে ভূমিকা রাখার স্বীকৃতি স্বরূপ শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেল এই সংগঠনটি।

বাংলাদেশ সময় দুপুর ৩ টায় নরওয়ের রাজধানী অসলোতে বিজয়ী হিসেবে সংগঠনটির নাম ঘোষণা করা হয়।

২০০৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে আত্মপ্রকাশ করে আইসিএএন। সংগঠনটি ১০১ টি দেশে পারমাণবিক অস্ত্র বিলোপে তৃণমূল পর্যায়ে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এর সদর দফতর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায়। বর্তমানে সংগঠনটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিয়েট্রিস ফিহন।
পুরস্কার ঘোষণার অনুষ্ঠানে নরওয়ের নোবেল কমিটি চেয়ারম্যান বেরিত রেইস অ্যান্ডারসন জানান, বর্তমান বিশ্বে পারমাণবিক অস্ত্রের ঝুঁকি আগের চেয়ে অনেক বেশি। পৃথিবীকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করতে হলে বিশ্বের পরমাণু শক্তিধর দেশগুলোকে সংগঠনের আওতায় আনা জরুরি। গত এক বছরে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়ার লক্ষ্যে নতুন উদ্যমে প্রচারে সচেষ্ট হয়েছে আইসিএএন।

এদিকে এ নিয়ে ২৬তম বারের মতো কোনো সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান শান্তিতে নোবেল জিতল।চলতি বছর দ্বিতীয়বারের মতো রেকর্ড সংখ্যক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছিল। মোট ৩১৮ জন প্রতিযোগীর মধ্যে ছিল ২১৫ জন ব্যক্তি এবং ১০৩টি সংগঠনের নাম।এর আগে ২০১৬ সালে ৩৭৬ জন প্রতিযোগীকে শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, ১৯০১ সাল থেকে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। এবারেরটিসহ এ পর্যন্ত শান্তিতে ৯৭টি নোবেল পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। নোবেল পুরস্কারের চারটি ক্যাটাগরির বিজয়ী সুইডিশ নোবেল কমিটি ঘোষণা করলেও শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের ঘোষণা নরওয়ে কমিটি দিয়ে থাকে।

প্রতিক্ষণ/এডি/শাআ

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

অক্টোবর ২০১৭
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
0cc0