স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে ৮ টিপস

প্রকাশঃ জানুয়ারি ৩০, ২০১৫ সময়ঃ ৬:১৯ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:১৯ অপরাহ্ণ

হেলথ ডেস্ক, প্রতিক্ষণ ডটকম:

ব্যস্ততম জীবনে একটু সচেতন হলে imagesআমাদের ফিগারটাকে ঠিক রাখতে পারি। থাকতে পারি সুস্থ। ফিগার ঠিক রাখার জন্য নিম্নলিখিত হেলথ টিপস মেনে চলতে পারেন।

১. নিয়মিত ও পরিমিত খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলেন। খাদ্য তালিকায় অাঁশযুক্ত খাবার বৃদ্ধি করুন, আমিষ ও চর্বি জাতীয় খাবার কমিয়ে আনুন, ভাজা, পোড়া ও ফাস্টফুড জাতীয় খাবার সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করুন। ফলমূল ও শাকসবজি বেশি করে খাদ্য তালিকায় রাখুন। একেবারে বেশি করে খাওয়ার চেয়ে অল্প অল্প করে খাবার বারবার খেতে পারেন। পরিমিত বিশুদ্ধ পানি পান করুন। রাতে আহার তাড়াতাড়ি করা উচিত ও আহারের ১-২ ঘণ্টা পর ঘুমানোর অভ্যাস গড়ে তোলেন।

২. নিয়মিত ও পরিমিত নিদ্রা সুস্বাস্থ্য ও ফিগারের জন্য খুবই প্রয়োজন। দিনে ঘুমানোর অভ্যাস ত্যাগ করে রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর অভ্যাস করুন। প্রত্যহ ৬-৭ ঘণ্টা ঘুমানোর অভ্যাস গড়ে তোলেন।

৩. যাদের মেদ বেড়েছে অথবা জমেছে তারা নিয়মিত ও সঠিক ব্যায়াম করতে পারেন। তার জন্য আপনি একজন ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞের পরামর্শ গ্রহণ করতে পারেন। মনে রাখবেন হাঁটা সর্বোৎকৃষ্ট ব্যায়াম। নিয়মিত অন্তত আধঘণ্টা হাঁটার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

৪. মনে রাখবেন ভুল ব্যায়াম ও অনিয়মিত জিম এক্সারসাইজ আপনার সমস্যা আরো বাড়িয়ে তুলতে পারে।

৫. প্রাতঃকালে ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস গড়ে তুলুন ও সকালে স্কুল-কলেজ ও অফিসে যাওয়ার আগে গোসল সেরে নিন।

৬. দৈনন্দিন কাজকর্ম ও চলাফেরার সময় সোজা এবং সঠিকভাবে করুন। মনে রাখবেন চলাফেরা ও শারীরিক কাজের ক্ষেত্রে আপনার শরীরের অবস্থাগত ভুলের কারণে শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। আপনার বসা, শোয়া, কম্পিউটিং, দৈনন্দিন কাজ অথবা প্রফেশনাল কাজে কোনো শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে আপনি একজন ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞের চিকিৎসা ও পরামর্শ গ্রহণ করতে পারেন।

৭. দেহ-মন অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। যে কোনো প্রতিকূল মানসিক চাপে নিজেকে দূরে না সরিয়ে ধৈর্যসহকারে মোকাবেলা করুন।

৮. সর্বোপরি সুস্থ ও সুন্দর চিন্তা করুন এবং প্রাণ খুলে হাসুন, এতে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

প্রতিক্ষণ/এডি/ আফরোজা

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ ক্রিকেট স্কোর

আর্কাইভ

0cc0