গোড়ালির শুষ্কতা নিয়ে চিন্তিত?

প্রথম প্রকাশঃ মার্চ ১০, ২০১৬ সময়ঃ ২:৩৫ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:৩৮ অপরাহ্ণ

প্রতিক্ষণ ডেস্ক

feetজুতা যত দামী বা সুন্দরই পরুন না কেন, আপনার পা যদি হয় রুক্ষ, শুষ্ক ও ময়লা তাহলে ভালো দেখাবে না মোটেও। শরীরের অন্যান্য অংশের চেয়ে পায়ের গোড়ালির চামড়া অনেক শক্ত হয়। এ কারণে যত্ন না নিলে পায়ের এই অংশ খুব সহজেই ফেটে যায়। আর এটা যে শুধু শীতকালের সমস্যা তা কিন্তু নয়। অনেকের পা দেখা যায় সবসময়ই ফাটা অবস্থায় থাকে। আজ আমরা জানবো কীভাবে পায়ের গোড়ালির শুষ্কতা দূর করা যায়।

গ্লিসারিন ও গোলাপজলঃ সমান পরিমাণে গ্লিসারিন ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে এর মধ্যে কয়েক ফোঁটা মধু দিন। এই প্যাক দিয়ে পায়ের গোড়ালি হালকাভাবে ম্যাসাজ করুন। ৪৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। পরিবর্তনটা আপনি নিজেই দেখতে পারবেন।

লেবুর রসঃ লেবু কেটে এর রস পায়ের গোড়ালিতে সরাসরি লাগান। ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে আপনার পায়ের গোড়ালির শুষ্কতা ও কালচে ভাব দূর হবে।

নারকেল তেলঃ নারকেল তেল পায়ের গোড়ালিতে লাগিয়ে হালকাভাবে ম্যাসাজ করুন। ১৫ মিনিট এভাবে রেখে দিন। এবার হালকা গরম পানি দিয়ে পা ধুয়ে ফেলুন। এতে পা অনেক নরম ও মসৃণ হবে।

বেকিং সোডাঃ গরম পানির মধ্যে দুই বা তিন চা চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে এর মধ্যে ২০ মিনিট পা ভিজিয়ে রাখুন। নিয়মিত এভাবে পা ভিজিয়ে রাখলে পায়ের কালচে ভাব ও শুষ্কতা দূর হবে।

বেসনের প্যাকঃ বেসনের সঙ্গে মধু ও টক দই মিশিয়ে পায়ের গোড়ালিতে লাগান। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে পা ধুয়ে ফেলুন। এতে পায়ের গোড়ালির খসখসে ভাব দূর হয়ে পা হবে নরম ও মসৃণ।

কাজুবাদাম পেস্টঃ কাজুবাদাম পানির সঙ্গে মিশিয়ে বেটে ঘন মিশ্রণ তৈরি করে পায়ের গোড়ালিতে লাগান। সারারাত এভাবেই রেখে দিন। সকালে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, আপনার পায়ের গোড়ালির শুষ্কতা দূর হয়ে পা হবে নরম ও মসৃণ।

অ্যালোভেরার রসঃ অ্যালোভেরার রস দিয়ে পায়ের গোড়ালি ম্যাসাজ করে আধা ঘণ্টা রেখে দিন। এবার ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে আপনার আপনার পায়ের গোড়ালির শুষ্কতা সহজেই দূর হবে।

 

 

প্রতিক্ষণ/এডি/এফটি

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

20G