টাইগার বাহিনীর দিকে ভারতীয় মিডিয়ার বিশেষ দৃষ্টি!

প্রথম প্রকাশঃ নভেম্বর ১৩, ২০২২ সময়ঃ ১:২৫ পূর্বাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:২৫ পূর্বাহ্ণ

ক্রীড়া ডেস্ক

টি-২০ বিশ্বকাপে হারের পর ভারতের কোচ এবং অধিনায়ক বদল নিয়ে বার বার উপদেশ আসছে। রোহিত শর্মার পরিবর্তে হার্দিক পাণ্ড্যকে অধিনায়ক করার কথা বলা হচ্ছে। অনেকে মনে করেন রাহুল দ্রাবিড়ের জায়গায় টি-২০ ক্রিকেটে কোচ করা উচিত আশিস নেহরাকে। সেমিফাইনাল থেকে হেরে বিদায় নেওয়া ভারতীয় দলকে নিয়ে এমন উপদেশের মাঝে বাংলাদেশ জানাল যে তারা বোলিং কোচ হিসাবে অ্যালান ডোনাল্ডকেই রেখে দিচ্ছে। – এ বক্তবটা ভারতীয় মিডিয়া আনন্দ বাজার পত্রিকার।

বিশ্বকাপ শেষ হবার আগে থেকেই সূচী তৈরি আছে ডিসেম্বরের শুরুতেই ভারত বাংলাদেশে খেলতে আসছে। মুলত বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের কোচকে আর অধিনায়ক-কে এসব নিয়ে ভারতীয়দের মাথা ব্যাথার কারণ ঐ সিরিজ। ভারতীয় মিডিয়ার ‍দৃষ্টি বাংলাদেশ দলের কোচ-অধিনায়ক কে বা কারা থাকছে!

আনন্দ বাজার পত্রিকায় প্রকাশ হয়েছে এভাবে – “অস্ট্রেলিয়াতে এ বার বাংলাদেশ ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে হারলেও নেদারল্যান্ডস এবং জ়িম্বাবোয়েকে হারিয়েছিল। তাতে যদিও সেমিফাইনালের রাস্তা খোলেনি। এমন পারফরম্যান্সের পরেও রেখে দেওয়া হচ্ছে বাংলাদেশের কোচ, অধিনায়কদের। বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ডের এক কর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, “ভারতের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে যে সিরিজ় হবে তাতে অ্যালান ডোনাল্ড থাকবেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত ওর সঙ্গে বোলিং কোচ হিসাবে চুক্তি হয়েছিল। কিন্তু ও ভারতের সিরিজ়ের সময় থাকবে।”

বাংলাদেশ দল বিশ্বকাপে সেমিতে খেলতে পারেনি, এর জন্য বিসিবি কাকে কোচ রাখবে আর কাকে অধিনায়ক রাখবে সেটা নিয়ে ভারতীয় মিডিয়ার এতো মাথা ব্যাখার কারণ কি! কারণ তো একটাই বাংলাদেশে সিরিজ খেলতে আসার আগে যদি বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের মানসিক শক্তি নষ্ট করা সম্ভব হয়, তাহলে তো মাঠে নামার আগেই জিতে গেল ভারত। এই কাজটি সব সময়ই ভারতীয় মিডিয়া সিরিজ খেলতে বিদেশ যাবার আগে দায়িত্ব নিয়েই পালন করে থাকে।

টাইগার বাহিনীর অভ্যন্তরিণ বিষয়েও ভারতীয় মিডিয়ার বিশেষে কৌতহল রয়েছে। এই যেমন আনন্দ বাজার তদন্ত করে বের করেছে পেসার কাটার মাষ্টারের সমস্য ছিল। পত্রিকাটিতে প্রকাশ করা হয় -“বাংলাদেশ পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের বোলিং অ্যাকসন ঠিক করছেন ডোনাল্ড। নিজামউদ্দিন বলেন, “মুস্তাফিজুরকে খুব ভাল শেখাচ্ছে ডোনাল্ড। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজ়ে ভাল বল করেছে মুস্তাফিজুর।”

ডোনাল্ড থাকলেও বাংলাদেশ দলের টি-টোয়েন্টি কোচ শ্রীধর শ্রীরাম থাকবেন কি না তা এখনও জানায়নি সে দেশের বোর্ড। সূত্রের খবর, শ্রীধর শ্রীরামের কাজে খুশি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তাই তাঁকেও রেখে দেওয়া হতে পারে।

সূত্র : আনন্দ বাজার

 

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

20G