পাকিস্তান-তালেবান মুখোমুখি! হামলা শুরুর হুমকি

প্রকাশঃ নভেম্বর ৩০, ২০২২ সময়ঃ ১:৫৫ পূর্বাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিকে ডেস্ক

পাক-তালেবান শান্তি আলোচনাটা তিন মাস আগেই ভেস্তে গিয়েছে। তাহলে কি দুই মুসলিম প্রতিবেশী দেশ যুদ্ধে জড়াতে চলেছে! বাস্তবতা সে রকম ইঙ্গিতই দিচ্ছে। পাকিস্তান সরকার এবং সেনাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরুর ঘোষণা দিয়েছে তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি)। পাক তালিবান গোষ্ঠীর তরফে সোমবার একতরফা ভাবে সংঘর্ষ বিরতিতে ইতি টানার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

আফগানিস্তান সীমান্ত লাগোয়া খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশ-সহ পাকিস্তানের বিভিন্ন এলাকায় নতুন করে হামলার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে।

মুল ঘটনা, মঙ্গলবারই পাক সেনাপ্রধান পদে জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার শেষ দিন। বুধবার সেনাপ্রধান হিসেবে লেফটেন্যান্ট জেনারেল আসিম মুনির দায়িত্ব নেবেন। তার আগে পাক-তালেবানের এই ঘোষণা ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ বলে মনে করছেন বিশ্ব রাজনৈতিক এবং সামরিক পর্যবেক্ষকদের একটি অংশ।
২০১২ সালের অগস্টে আফগানিস্তানে তালেবানের ক্ষমতা দখলের পরে টিটিপির সঙ্গে শান্তি আলোচনা শুরু করেছিল তৎকালীন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সরকার।

কিন্তু গত ডিসেম্বরে সেই আলোচনা ভেস্তে যায়। এরপর এপ্রিলে ইসলামাবাদে ক্ষমতার পালাবদল হয়। ইমরানকে সরিয়ে প্রধানমন্ত্রী হন শাহবাজ শরিফ। এ বছর জুনে আবারো আলোচনা শুরুর পর সংঘর্ষ বিরতিতে সম্মত হয় দু’পক্ষ। কিন্তু আগস্টের দ্বিতীয় দফার বৈঠকও ব্যর্থ হয়। টিটিপির অভিযোগ, সংঘর্ষ বিরতি ভেঙে পাক সেনা একতরফা ভাবে অভিযান শুরু করার ফলেই নতুন করে অশান্তি সৃষ্টি হয়েছে।

পাক সংবাদপত্র দ্য ডন বলেছে, সেপ্টেম্বরের গোড়ায় জেনারেল বাজওয়া ২৫০ নম্বর কোরের কমান্ডার এবং অন্য অফিসারদের সঙ্গে বৈঠকে খাইবার-পাখতুনখোয়া এবং বালুচিস্তানে নতুন করে সন্ত্রাস দমন অভিযান শুরু করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। তার পরেই শুরু হয় ‘অপারেশন’। এই পরিস্থিতিতে পাক তালিবানের ‘যুদ্ধ’ ঘোষণায় আফগান সীমান্তের পাশাপাশি সে দেশের বড় শহরগুলিতে নাশকতার আশঙ্কা রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

সূত্র : দ্য ডন

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

January 2023
S S M T W T F
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  
20G