বাংলাদেশে ঢুকে চীনা নাগরিকদের ১৪ দিন ‘বাসায়’ থাকতে হবে

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২০ সময়ঃ ২:৪৪ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:৪৪ অপরাহ্ণ

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশে প্রবেশের পর চীনা নাগরিকদের বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিন বাসায় অবস্থান করতে হবে। ইমিগ্রেশন পার হওয়ার আগেই তাদের কাছ থেকে নাম ও ঠিকানাসহ বিস্তারিত তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা হবে এবং তিনি নিজে থেকেই দুই সপ্তাহ বাসা থেকে বের হবেন না এই মর্মে অঙ্গীকারপত্রে স্বাক্ষর করতে হবে।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে তার গতিবিধি নজরদারি করা হবে। অঙ্গীকারনামা ভঙ্গ করলে ওই চীনা নাগরিকের বিরুদ্ধে সরকার আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পারবে। নভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধে অধিকতর সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে চীনা নাগরিকদের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। আজ বা আগামীকাল মঙ্গলবারের মধ্যে অঙ্গীকারনামা সংগ্রহের নতুন নিয়ম চালু হবে বলে সূত্র জানায়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২১ জানুয়ারি থেকে ২ ফেব্রুয়ারি রাত পর্যন্ত চীনা ও বাংলাদেশের সর্বমোট ৫ হাজার ৮৩৮ জন নাগরিক বাংলাদেশে ফিরে এসেছেন। আজ (সোমবার) সকালে চীন থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন আরও ১১৪ জন।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন ফ্লাইটে ১২ থেকে ১৩ হাজার যাত্রী প্রবেশ করেন। বর্তমানে করোনাভাইরাস শুধু চীনেই সীমাবদ্ধ নেই, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এ কারণে শুধু চীন থেকে আসা ৪টি ফ্লাইটই নয়, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সব ফ্লাইটের যাত্রীদের বিশেষ করে চীনা নাগরিকদের ওপর সতর্ক দৃষ্টি রাখার প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন রোগ তত্ত্ব ও স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞরা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্বাস্থ্য অধিদফতরের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, চীনা নাগরিকদের দুই সপ্তাহ স্বেচ্ছায় বাসায় অবস্থানের মাধ্যমে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি মুক্ত রাখার নতুন ধারণাটি চীন সরকারের মাধ্যমে জেনেছে বাংলাদেশ সরকার।

বাংলাদেশের চীন দূতাবাস সূত্রে জানতে পেরেছে, বর্তমানে চীনে তাদের নাগরিকদের কাছ থেকে দুই সপ্তাহ বাসায় অবস্থানের অঙ্গীকারনামা নেয়া হচ্ছে। এতে সংক্রমণের ঝুঁকি কমে যাবে বলে তারা মনে করছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে কর্মরত সহকারী পরিচালক ডাক্তার শাহরিয়ার সাজ্জাদের কাছে নতুন এ উদ্যোগের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, নভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চীনা নাগরিকদের স্বেচ্ছায় দুই সপ্তাহ বাসায় অবস্থানের ব্যাপারে অঙ্গীকারনামা নেয়ার সরকারি সিদ্ধান্তের কথা তিনি নিজেও শুনেছেন। তবে এখনও অঙ্গীকারনামার ছাপানো ফরম হাতে পাননি। আজ বিকেল নগদ ফরমম হাতে পেলেই নতুন নিয়ম চালু হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী চীনের প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৬১ জনে । রোববার মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ৫৬ জনই ভাইরাসের উৎসস্থল হুবেই প্রদেশের। সেখানে এ পর্যন্ত মারা গেছেন অন্তত ৩৫০ জন।

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2020
S S M T W T F
« Jan    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
29  
20G