আপনিও থাকতে পারেন থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্তদের পাশে

প্রকাশঃ মার্চ ১৭, ২০১৬ সময়ঃ ১২:১১ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:৫১ অপরাহ্ণ

প্রতিক্ষণ ডেস্ক

hospital

রাতের অন্ধকারে রাস্তায় ছিনতাইকারী ধরে বলছে ‘কি আছে বাইর কর’। সাঙ্গপাঙ্গ হাত্রে দেখলো, নেয়ার মতো কিছুই নাই। ছিনতাইকারীর প্রধান এবার বললেন ‘যেহেতু কিছুই নাই, তাইলে কইসে একটা চড় দে’।

এসিস্টেন্ট ছিনতাইকারী বলল, “উস্তাদ নাদুস নুদুস আছে, কিছু রক্ত নিয়ে রাখি বরং”। ‘ল তাইলে’।

আজ তারাও বুঝতে শিখেছে রক্তের ভ্যালু। আর আমরা? না ভাই, “শুধু রক্তের প্রয়োজন শুনেই রক্ত দিবো”… সেই দিন শেষ। এ দেশে কিছু ফিক্সড মানুষের প্রতিমাসে রক্ত লাগে। সেই ‘কিছু’ মানুষের সংখ্যা কতো জানেন? ৬০ হাজার।

হ্যাঁ, দেশে প্রায় সাড়ে তিন লাখ থ্যালাসেমিয়ার পেশেন্ট আছে, যাদের মধ্যে ৬০ হাজার রোগীর প্রতিমাসে রক্ত লাগে। আমরা অনেকেই জানি না… জীবনে অনেক কিছু করার চেষ্টা করেছি। জ্যাক অফ অল ট্রেডস… মাস্টার অফ নান হয়েই আছি। আর না।

এবার ফোকাসড ওয়েতে আগাবো। একটা থ্যালাসেমিয়া হাসপাতাল গড়ে তুলবো। বাংলাদেশে থ্যালাসেমিয়া স্পেশালাইজড কোনও হাসপাতাল নেই। ডায়বেটিকের জন্য যেমন আছে বারডেম… হার্টের জন্য যেমন আছে হার্ট ফাউন্ডেশান, তেমনি থ্যালাসেমিয়া বা ব্লাড ডিজঅর্ডার রিলেটেড সমস্যাগুলোর জন্য থাকবে “থ্যালাসেমিয়া ফাউন্ডেশান হসপিটাল”।

আজ থেকে ৩ বছর পর যেন কোনও গরীব থ্যালাসেমিয়া রোগীর তার রোগের স্পেশালাইজড হাসপাতাল খুঁজতে ঢাকার এমাথা থেকে ওমাথা হাঁটতে না হয়। ইতিমধ্যে শান্তিনগরে ছোট করে শুরু হওয়া থ্যালাসেমিয়া ফাউন্ডেশানে আমাদের সাথে প্রায় ১৯০০ থ্যালাসেমিয়া রোগী আছে যাদের প্রতিমাসে সাপোর্ট দিচ্ছি আমরা।

facebook

হ্যাঁ, টাকার বিনিময়ে। কারণ, বাংলাদেশে ফ্রি ট্রিটমেন্টের থেকে বেশি দরকার এপ্রপ্রিয়েট ট্রিটমেন্ট। আমি জয়েন করেছি তাদের সাথে। সম্মানী নিচ্ছি না তাদের কাছে থেকে। বরং জয়েন করেছি ‘প্রতি ৩ মাস পরপর আমি আমার রক্ত দিতে বাধ্য এবং একজন গরীব থ্যালাসেমিয়া রোগীর প্রতি মাসের ঔষুধের খরচ দিবো’, এই চুক্তিতে।

আপনি চাইলে জয়েন করতে পারেন। রক্ত দিয়ে… কোনও গরীব রোগীর ঔষুধের স্পন্সর নিয়ে … বা অন্য যে কোনভাবেই এগিয়ে আসতে পারেন। দেশে প্রাইভেট হাসপাতালও এক সেন্সে পাবলিক হাসপাতাল হতে পারে, এটা দেখিয়েই ছাড়ব। কারন কিছু না দিলেও, একটা সাদা বেড কভার ডোনেট করেও অনেকে এর স্টেইক হোল্ডার হয়ে আছে। আপনিও আসতে পারেন।

আমাদের একাউন্ট থেকে শুরু করে অডিট রিপোর্ট থেকে সব কিছু আপ-টু-ডেট করা আছে। কিছু না দেন, এসে পরামর্শ দিলেও খুশি হবো। এসে দেখে যান, অনলাইনে লাইক পাওয়া থেকে অফলাইনে লাইক পাওয়ার মজাটা, কতো আলাদা। আমাদের হট লাইন নম্বর : 02-8332481, 01755587479, 01190840191

আরিফ আর হোসেইনের ফেসবুক পাতা থেকে উপরের এই লাইনগুলো নেয়া হয়েছে।

fb

face

#লাইক ও শেয়ার দিয়ে প্রতিক্ষণের সাথে থাকুন।

প্রতিক্ষণ/এডি/এফটি

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G