জাতিসংঘের আহ্বান প্রত্যাখান, তালেবানদের নতুন বেত্রাঘাতের ঘোষণা 

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ২০, ২০২২ সময়ঃ ২:১৪ পূর্বাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:১৮ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিকে ডেস্ক

আফগানিস্তানের তালেবানরা ইসলামপন্থী শাসকদের অবিলম্বে বেত্রাঘাত সহ সকল অমানবিক কার্যক্রম বন্ধ করার জন্য জাতিসংঘের নতুন আহ্বান জানিয়ে ছিল। কিন্তু অমান্য করে নারী ও পুরুষ উভয়েই দোষী সাব্যস্তদের নতুন করে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত মারার ঘোষণা দিয়েছে তালেবানরা।

তালেবানের সুপ্রিম কোর্ট সোমবার বলেছে যে, উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ জোজজানের রাজধানী শেবারগানের একটি জনাকীর্ণ ক্রীড়া স্টেডিয়ামে নারীসহ ২২ জনের একটি দলকে বেত্রাঘাত করা হয়েছে।

সরকারী এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ব্যভিচার, সমকামী যৌনতা, বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়া, মাদক পাচার এবং চুরি সহ অভিযুক্ত অপরাধের জন্য প্রত্যেককে ২৫ থেকে ৩৯ এর মধ্যে বেত্রাঘাত করা হয়েছিল। একই ধরনের অপরাধ করার জন্য মধ্য ঘোর প্রদেশে ১১ জন পুরুষ ও একজন মহিলাকে বেত্রাঘাত করা হয়েছে বলে রবিবার আদালত জানিয়েছে।

তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা, বিচার বিভাগকে ইসলামী আইন বাস্তবায়নের নির্দেশ দিয়েছিলেন। তখন থেকে আফগান কর্তৃপক্ষ বেশ কয়েকটি প্রদেশে এবং রাজধানী কাবুলের জনাকীর্ণ ক্রীড়া স্টেডিয়ামে ১৩০ জনেরও বেশি নারী-পুরুষকে বেত্রাঘাত করেছে। যা শরিয়া ভিত্তিক শাস্তি।

আদেশটি ২০২১ সালের আগস্টে আফগানিস্তানে তালেবানের ক্ষমতায় ফিরে আসার পর দোষী সাব্যস্ত হত্যার প্রথম প্রকাশ্যে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছিল।

কর্মকর্তারা বলেছেন, দুই সপ্তাহ আগে পশ্চিমাঞ্চলীয় ফারাহ প্রদেশে মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছিল। “কিসাস [প্রকারের প্রতিশোধ] অনুযায়ী একটি ইসলামিক আইন যেভাবে ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছিল একইভাবে শাস্তি দেওয়া হয়।

সূত্র : ভয়েব অব আমেরিকা

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G