ঢাকা লিট ফেস্ট আজ শুরু, হবে ৪ দিনব্যাপী

প্রকাশঃ জানুয়ারি ৫, ২০২৩ সময়ঃ ৫:৫০ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৭:৩৫ অপরাহ্ণ

জাতীয় প্রতিনিধি

 চারদিন ব্যাপী ঢাকা লিট ফেস্ট ২০২৩  আজ শুরু হয়েছে। আগামী ০৮ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই সাহিত্য আসর। কোভিড মহামারির কারণে তিন বছর বিরতির পর এবার পুনরায় শুরু হলো লিট ফেস্টের আয়োজন।

লিট ফেস্টের এটি দশম আয়োজন। ফেস্টের প্রথম সকালেই দেশি-বিদেশি কবি, সাহিত্যিক, চিন্তাবিদ ও লেখকদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ।  নোবেল বিজয়ী সাহিত্যিক তানজানিয়ান-

ব্রিটিশ ঔপন্যাসিক আবদুলরাজাক গুরনাহ, বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, ভারতীয় লেখক ও সাহিত্য সমালোচক অমিতাভ  ঘোষ এবং বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নুরুল হুদা আজ

সকালে ঢাকা লিট ফেস্ট ২০২৩-এর উদ্বোধন করেন। বাংলা একাডেমির আব্দুল করিম সাহিত্য বিশারদ মিলনায়তনে মনিপুরী, ক্লাসিক্যাল, রবীন্দ্র সংগীতের সুরে ও নৃত্য পরিবেশনের মাধ্যমে শুরু হয় দশম

উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা লিট  ফেস্টের তিন পরিচালক যথাক্রমে ড. কাজী

আনিস আহমেদ, সাদাফ সায ও আহসান আকবার।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আবদুলরাজাক গুরনাহ বলেন, ‘আমি প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এসেছি। আমি ধারণা

করছি এই আয়োজনের মাধ্যমে এমন কিছু দেখবো যা আমি জীবনেও দেখিনি। আমি মনে করি, এই আয়োজনের শুরুটা বেশ চমকপ্রদ ছিল।’

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, ঢাকা লিট ফেস্ট এর সাফল্য কামনা করে বলেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এই আয়োজনের সাথে নানাভাবে সম্পৃক্ত। ভবিষ্যতে এই সম্পৃক্ততা আরো বাড়বে।

ভারতীয় লেখক ও সাহিত্য সমালোচক অমিতাভ ঘোষ বলেন, ‘এরকম একটা আয়োজনে এসে আমি সম্মানিত  বোধ করছি। অমিতাভ ঘোষ জন্মসূত্রে বাংলাদেশী। তার মায়ের বাড়ি গোপালগঞ্জ এবং বাবার বাড়ি বিক্রমপুর।

তিনি বাংলাদেশেই বড় হয়েছেন। শৈশবের স্মৃতিচারণ করে অমিতাভ ঘোষ বলেন, আমি সবসময় বাংলাদেশের কথা বলি। বাংলাদেশের ভাষা খুব চমৎকার। বাংলাদেশ এবং বাংলা ভাষা দিন দিন আমার জীবনের অংশ হয়ে

উঠেছে।’
আয়োজকরা জানান, এবারের চার দিনের এই আয়োজনে থাকবে কথোপকথনের একটি বৈচিত্র্যময় মিশ্রণ,

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সেশন, শিশু ও তরুণদের জন্য আকর্ষণীয় আয়োজন, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, নাট্য, সংগীত এবং সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এবারের আয়োজন সাজানো হয়েছে ভিন্ন আঙ্গিকে। প্রতিদিন সকাল ১০.০০ টা

থেকে রাত ০৮.০০ টা পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলবে।
ঢাকা লিট ফেস্টের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে আছে বাংলা ট্রিবিউন ও ঢাকা ট্রিবিউন। সেই সাথে প্লাটিনাম

স্পন্সর হিসেবে আছে দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেড এবং স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার ব্রিটিশ কাউন্সিল। অনলাইন  রেজিস্ট্রেশন ও সরাসরি টিকিটের  লোকেশন জানতে লগইন করতে হবে িি.িফযধশধষরঃভবংঃ.পড়স -এ।

এবারের আয়োজনে প্রবেশের জন্য টিকিটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ২০০ এবং ৫০০ টাকায় টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। অনলাইনে এবং সশরীরে টিকিট কেনার সুযোগ রয়েছে। এছাড়া বাংলা একাডেমির মূল প্রবেশমুখে

আছে স্পট রেজিস্ট্রেশনের সুবিধা। ১২ বছরের কম বয়সী ও শারীরিকভাবে অক্ষম ব্যক্তিরা বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন। অনলাইন  পেমেন্টের মাধ্যমে টিকিট কেনার ব্যবস্থা রয়েছে। পাশাপাশি  যেসব স্থানে টিকিট

পাওয়া যাবে,– ঢাকা লিট  ফেস্ট অফিস (নিকেতন, ঢাকা), মীনা সুইটস (বনানী এক্সপেরিয়েন্স জোন এবং পান্থপথ শাখা), মীনা বাজার (ধানমন্ডি ২৭, উত্তরা আউটলেট, ইসিবি চত্বর আউটলেট, শান্তিনগর আউটলেট,

বনশ্রী এবং মগবাজার আউটলেট), বাংলার মিষ্টি (বনানী ও গুলশান আউটলেট), আড়ং (মিরপুর, গুলশান ও উত্তরা আউটলেট) এবং নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়।

ঢাকা লিট ফেস্টের অফিস সুত্র জানায়, টিকিটের মূল্য দৈনিক জনপ্রতি ৫০০ টাকা। তবে একসঙ্গে চার দিনের টিকিট নিতে চাইলে ৫০০ টাকা ছাড়। এক্ষেত্রে একেক জন দর্শনার্থী ১৫০০ টাকায় চারদিনের টিকিট পেয়ে

যাবেন। এদিকে শিক্ষার্থীরা প্রতিজন ২০০ টাকায় টিকিট কিনতে পারবেন। শিক্ষার্থীদের বেলায় একসঙ্গে চার দিনের টিকিট কিনলে লাগবে ৫০০ টাকা, অর্থাৎ তাদের জন্য থাকছে ৩০০ টাকা ছাড়।

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

July 2024
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
20G