‘তালেবানরা সন্ত্রাসবাদের আশ্রয়দাতা’- মেনে নেবে না পাকিস্তান

প্রকাশঃ জানুয়ারি ৪, ২০২৩ সময়ঃ ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিকে ডেস্ক

পাকিস্তান অভিযোগ করে বলেছে কোনো দেশকে তাদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র হামলা চালানো সুযোগ দেওয়া হবে না। তবে কাবুল এ সব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। এক সরকারী বিবৃতিতে পাক সরকার সরাসরি না হলেও অন্যভাবে তালেবানদের সর্তক করেছে। সর্বোশক্তি প্রয়োগের কথাও উচ্চারিত হয়েছে পাকিস্তানী প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর মুখে।

পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী অভিযোগ করেছেন আফগানিস্তানের মাটি সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলি দ্বারা তার দেশে আক্রমণ চালানোর জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে। কাবুলের তালেবান সরকারের কাছ থেকে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। পাকদের এই অভিযোগটিকে “ভুল” এবং “দুঃখজনক” বলে অভিহিত করেছে তালেবান সরকার।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী খাজা আসিফ সোমবার রাতে একটি বেসরকারি নিউজ চ্যানেলকে বলেন, “আমরা আফগানিস্তান সরকারের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা বলতে থাকব কারণ তাদের মাটি আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসবাদের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।”

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ নবনিযুক্ত সামরিক প্রধান জেনারেল আসিম মুনির এবং অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তারা রাজধানী ইসলামাবাদে জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির (এনএসসি) বৈঠকে যোগ দেওয়ার পরই আসিফের মন্তব্য এসেছে।

এনএসসি বৈঠকের পর সরকারের তরফ থেকে জারি করা একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “কোনও দেশকে সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্য দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে না। তাদের আক্রমণকে “রাষ্ট্রের পূর্ণ শক্তি দিয়ে মোকাবেলা করা হবে”।

এনএসসি বিবৃতিতে কোনো দেশের নাম উল্লেখ করা হয়নি। তবে এটি প্রতিবেশী আফগানিস্তানের প্রসঙ্গটি স্পষ্ট উল্লেখ ছিল। অভিযোগগুলিকে তালেবান সরকার “উস্কানিমূলক এবং ভিত্তিহীন” বলে অস্বীকার করে।

সূত্র : আল-জাজিরা

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G