প্রচন্ড শীতে বরিশালে নিউমোনিয়া ও শ্বাস সমস্যায় হাতপাতালে রোগীর মিছিল

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ২৯, ২০২২ সময়ঃ ২:২৫ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:২৫ অপরাহ্ণ

বরিশাল প্রতিনিধি

বরিশালে আচমকা হাসপাতালে শিশু রোগীর মিছিল শুরু হয়েছে। এর মুল কারণ প্রচন্ড শীতে নিউমোনিয়া ও শ্বাসতন্ত্রের সমস্যা।

বছরের শেষ সময়ে হঠাৎ করে বরিশালের সব জায়গায় ভয়াবহ শীত জেঁকে বসেছে। যে কারণে বরিশালে বয়স্ক ও শিশুদের ওপর শীতের নেতিবাচক প্রভাব পরতে শুরু করেছে। বয়স্ক ও শিশু এই দুই শ্রেণির মানুষ সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন নিউমোনিয়া ও শ্বাসতন্ত্রের সংক্রমণে।

বরিশাল থেকে পাঠানো রিপোটে থেকে জানা গেছে, বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত কয়েকদিনে শয্যার তুলনায় হাসপাতালে চারগুণ শিশু রোগী ভর্তি রয়েছে। এর মধ্যে চলতি মাসে ঠান্ডাজনিত সংক্রমণে ১০ শিশু মারা গেছে।

একাধিক চিকিৎসকেরা বলেছেন, শীত মৌসুম শুরুর পর থেকেই শ্বাসতন্ত্রের প্রদাহজনিত রোগ বা অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ইনফেকশন (এআরআই), গলাব্যাথা থেকে শুরু করে ব্রঙ্কাইটিস, নিউমোনিয়া ইত্যাদি রোগের ব্যাপক প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে।

শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচএম সাইফুল ইসলাম জানিয়েছে, এমনিতেই হাসপাতালে সবসময় রোগীর চাপ বেশি থাকে। এরমধ্যে শীতের শুরুতে অন্যান্য রোগীর তুলনায় শিশু ও বয়স্করা ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয় বেশি। আমরা চেষ্টা করি সকল রোগীর চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে। এই সময়টায় শিশুদের মধ্যে নিউমোনিয়া, ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্ট, জ্বর-সর্দিসহ বিভিন্ন রোগের প্রকোপ বেশি দেখা যায়।

জানা গেছে, শেবাচিমের শিশু ওয়ার্ডে মোট বেডের সংখ্যা ৩৬টি। কিন্ত ডিসেম্বর মাসের শুরু থেকে ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১৪১ জন শিশু ভর্তি হয়েছে। এরমধ্যে শিশু ওয়ার্ডে ঠান্ডাজনিত সংক্রমণে ১০ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত শিশুদের অধিকাংশের বয়স ২৯ দিন থেকে ৫ বছর। অপরদিকে হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ঠান্ডাজনিত সংক্রমণে চলতি মাসে ১৭ জন ভর্তি হয়েছেন। এরমধ্যে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

সরেজমিন শিশু ওয়ার্ডে দেখা গেছে, ওয়ার্ডটি রোগীতে পরিপূর্ণ। ঠান্ডাজনিতরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে শয্যা না পেয়ে মেঝেতে বিছানা পেতে রাখা হয়েছে বেশিরভাগ শিশুকে। রোগীর চাঁপে নার্স ও চিকিৎসকরা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন।

হাসপাতালের শিশু বিভাগে কর্মরত সিনিয়র স্টাফ নার্স জোসনা আক্তার বলেন, হাসপাতালে ভর্তি শিশুরা নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত। প্রতিদিন কম বেশি ৩০ থেকে ৪০ জন শিশু নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্টসহ ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

May 2024
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
20G