ভয়ঙ্কর সুন্দর শিকারি!

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৫ সময়ঃ ১:২০ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৯:০৪ পূর্বাহ্ণ

শখের বশে আমরা অনেক সুন্দর সুন্দর প্রাণী পুষে থাকি। কিন্তু তারাই অন্যদের ক্ষতি করছে তা আমরা ভাবতেই পারি না। প্রতিক্ষণের পাঠকদের জন্য ছবিঘরে থাকছ এমনই কিছু প্রাণীর ছবিসহ বর্ণনা।

ধূসর রঙয়ের কাঠবিড়ালি

shikari 1

পোষা প্রাণী হিসেবে ব্যবহারের লক্ষ্য উত্তর অ্যামেরিকা থেকে ধূসর রঙয়ের এই কাঠবিড়ালিদের ইউরোপে নিয়ে আসা হয়েছিল৷ কিন্তু তারা এসে কী করলো? ইউরোপের যে নিজস্ব লাল রঙয়ের কাঠবিড়ালি আছে সেগুলো আকারে ছোট আর একটু লাজুক স্বভাবের হওয়ায় তাদের ঘরছাড়া করা শুর করলো৷ শুধু বেচারা লাল কাঠবিড়ালিই নয়, ধূসর এই কাঠবিড়ালি ইউরোপের গাছের জন্যও ক্ষতিকর হয়ে উঠেছে৷ কেননা এরা গাছের রস খাওয়ার জন্য গাছের ছাল খুলে ফেলে৷

খরগোশ

shikari 2

ইস্টার মানেই খরগোশ৷ কিন্তু রূপকথার এই চরিত্রটি যেন আমাদের ইকোসিস্টেমের শত্রু৷ তাই তো গাছ, মাটি সব তার হামলায় তটস্থ৷ অস্ট্রেলিয়া সহ বিভিন্ন দ্বীপে খরগোশকে ধরার মতো প্রাণীর অভাবে সেখানকার ‘ইকোসিস্টেম’-এর বেশি ক্ষতি করতে পারে খরগোশ৷

কচ্ছপ

shikari 3

লাল রঙের কানওয়ালা কচ্ছপের আদিবাস যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে৷ সেখান থেকে পোষা প্রাণী হিসেবে বিশ্বের অনেক দেশে তার যাওয়া৷ কিন্তু গিয়েই ঐ সব অঞ্চলের কচ্ছপের সঙ্গে প্রতিযোগিতা শুরু করে দেয় তারা৷ দ্রুত বংশবিস্তার আর আকারে বড় হওয়ার কারণে অন্য কচ্ছপের শরীরে রোগ ছড়িয়ে দেয় তারা৷ জীববৈচিত্র্যের উপর যেসব প্রাণীর নেতিবাচক ভূমিকা আছে লাল কানওয়ালা এই কচ্ছপগুলো তাদের মধ্যে একটি৷

খেঁকশিয়াল

shikari 4

বাড়ি ইউরোপে৷ পরবর্তীতে অ্যামেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে তারা৷ ইঁদুর, কাঠবিড়ালির মতো প্রাণীর সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে খেঁকশেয়ালের ভূমিকা আছে৷ কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশে খেঁকশেয়ালের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণের কোনো প্রাণী না থাকায় এগুলো সেখানকার পরিবেশের বেশ ক্ষতি করছে৷

বিড়াল

shikari 5

প্রায় সাড়ে নয় হাজার বছর আগে থেকে বিশ্বের সবচেয়ে প্রিয় পোষা প্রাণী বিড়াল৷ কিন্তু জানেন কি, বিড়ালের কারণে প্রায় ৩৩ প্রজাতির প্রাণী বিলুপ্ত হয়ে গেছে?

ফেনেল

shikari 6

মৌরি জাতীয় সুগন্ধী হলুদ রঙের এই সবজি দিয়ে চা তৈরি করা যায়৷ এই ঔষধি গাছের আশেপাশে অন্য কোনো গাছ থাকা মানেই বিপদ৷ কারণ অন্য গাছের কথা না ভেবে ফেনেল সবসময় আশেপাশে থাকা আলো, পানি ও পুষ্টিকর উপাদানের পুরোটা নিজের জন্য সংগ্রহ করে থাকে৷

সূত্রঃ ডয়েচে ভেলে
প্রতিক্ষণ/এডি/এনজে

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G