মরিচ চাষ পদ্ধতি

প্রকাশঃ জুলাই ৮, ২০১৫ সময়ঃ ৬:৪৭ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৯:১২ পূর্বাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট, প্রতিক্ষণ ডটকম:

chilliমরিচ খুবই প্রয়োজনীয় একটি মসলা।বর্তমান বাজারে মরিচের প্রচুর চাহিদা রয়েছে।আমাদের দেশে দিন দিন মরিচ চাষ বৃদ্ধি পাচ্ছে। কারণ   স্বল্প  পুঁজি নিয়ে মরিচ চাষের মাধ্যমে খুব দ্রুত অধিক মুনাফা আয়  করা  সম্ভব। তাই যে কেহ ইচ্ছা করলেই মরিচ চাষের মাধ্যমে অল্প সময়ে আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারেন। আসুন জেনে নেই মরিচ চাষ পদ্ধতিঃ

বীজ উৎপাদন
মরিচ স্ব-পরাগায়িত জাত। স্ব-পরাগায়নের জন্য সাদা পলিথিন ব্যাগ দিয়ে ফুল পরাগধানী বিদারনের আগেই ঢেকে দিতে হবে। পরিপক্ক, পুষ্ট এবং উজ্জ্বল লাল রং-এর মরিচ থেকে বীজ সংগ্রহ করতে হবে। সাধারণত একটি মরিচে ৭০-৭৫ টি বীজ থাকে এবং ১০০০টি বীজের ওজন প্রায় ৫ গ্রাম।

চারা উৎপাদন পদ্ধতি
ভাল চারার জন্য প্রথম বীজতলায় চারা গজিয়ে দ্বিতীয় বীজতলায় স্থানান্তর করতে হয়। প্রতিটি বীজতলা ৩ মিটার দৈর্ঘ্য, ১ মিটার  প্রস্থ এবং ৪০ সে.মি. উঁচু হতে হবে। বীজতলার উপরের মাটিতে বালি ও কমপোষ্ট বা শুকনা পচা গোবর সম পরিমাণ মিশিয়ে ঝুরঝুরা করে নিতে হয়। বীজ বপনের পর বীজতলায় বীজ যাতে পোকামাকড় দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ না হয়, সেজন্য প্রতি লিটার পানিতে ২ গ্রাম সেভিন মাটিতে মিশিয়ে দিতে হয়। বীজ বপনের পর অতিবৃষ্টি বা প্রখর রোদ থেকে রক্ষা পেতে বাঁশের চাটাই বা পলিথিন দিয়ে বীজতলা ঢেকে দিতে হবে।

জমি চাষ, ভিটি তৈরি ও রোপন
নির্দিষ্ট দূরত্বে উপযুক্ত মাত্রায় সুস্থ সতেজ চারা রোপন করতে হবে এবং চারা রোপন মুহুর্তে পানি সেচ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। তাতে মাটিতে সহজে গাছ নিজকে খাপ খাইয়ে নিতে পারে। মরিচের চারা লাগানোর জন্য ১ মিটার প্রশস্ত ও লম্বায় জমির অবস্থান মতো ভিটি তৈরি করতে হবে।পানি সেচ ও নিস্কাশনের সুবিধার্থে প্রত্যেক ভিটি অন্ততঃ ২০ সে.মি. উঁচু হবে ও দুই ভিটির মাঝে ৩০ সে.মি. প্রশস্ত নালা থাকবে। প্রত্যেক ভিটির উভয় পার্শ্ব হতে ৩০ সে.মি. জায়গা খালি থাকবে যাতে প্রতি ভিটায় দুই সারি চারা লাগানো যায়।

প্রতিক্ষণ/এডি/জুয়েল

 

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

July 2024
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
20G