মানুষের চামড়ায় তৈরি বিভিন্ন জিনিসপত্র!

প্রকাশঃ জুন ২৪, ২০১৫ সময়ঃ ৮:০০ পূর্বাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৯:১৫ অপরাহ্ণ

ইয়াসীন পাভেল, প্রতিক্ষণ ডট কম:

Drums-made-​​of-human-skinপশু শিকারি আদিম মানুষ চামড়ার ব্যবহার জানতো না। ফলে তখন তা ছিল তাদের কাছে অপ্রয়োজনীয় জিনিষ।কিন্তু সময়ের ব্যবধানে মানুষ পশুর চামড়াকে কাজে লাগানো শিখেছে।শুধু পশুর চামড়াই নয় এক সময় মানুষের চামড়াও ব্যবহার হতে শুরু করেছে বিভিন্ন পন্য তৈরির কাজে! সত্যিই চমকে ওঠার মতোই খবর। পৃথিবীতে এও কি সম্ভব?

অবিশ্বাস করলেও এটাই বাস্তবতা। মানুষ পৃথিবীর সেরা জীব হলেও তার চামড়া থেকেই তৈরি হয়েছে বই, জুতা, ঢোল, ওয়েস্ট কোট, সিগার কেস, কলিং কার্ড, ওয়ালেট, সিলিপার ও হাইহিলসহ নানা কিছু।

ঢোল: জান জে ট্রোক নোভা (Jan z Trocnova) , ছিলেন চেক প্রজাতন্ত্রের একজন জেনারেল এবং সেই সময়ের পৃথিবীর খ্যাতিমান বীর যোদ্ধা।ক্যাথলিক চার্চের বিরুদ্ধে গড়ে ওঠা অধিকাংশ ক্রুসেড শক্ত হাতে দমন করেন। তিনি ১৪২৪ সালের ১১ই অক্টোবর প্লেগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।মারা যাবার আগে তার শেষ ইচ্ছা ছিল যেন সে মারা গেলে তার চামড়া দিয়ে ঢোল বানানো হয় যাতে সেই ঢোলে বাড়ি দিয়ে তার সৈন্যরা যুদ্ধ শুরু করে আর এভাবে সে মারা যেয়েও যুদ্ধে থাকার ইচ্ছা পোষণ করে।

 

Human-skin-bookবই: মানুষের চামড়া দিয়ে বই বাঁধানোকে বলা হয় anthropodermic bibliopegy,আর এই বাঁধানোর ব্যাপারটা শুরু হয়েছিল ১৭ দশক থেকে।কিন্তু কেন শুরু হয়েছিল তা এক বিস্ময়।তবে judicial proceedings এর বই ও বাঁধাই করা হয়েছে খুনির চামড়া দিয়ে এমন উদাহরণও রয়েছে।তবে মানুষের চামড়া দিয়ে জিনিসপত্র তৈরির সবথেকে আলোচিত উদাহরণ হল Ilse Koch এর কাহিনী।এই ভয়ংকর মহিলা নাৎসি ক্যাম্পের বন্দীদের চামড়া দিয়ে নানা জিনিস তৈরি করে সারা দুনিয়ায় হৈচৈ ফেলে দিয়েছিল।

Wallet-made ​-of-human-skinওয়ালেট: ১৮৩৩ সালে নিউজার্সির মরিসটাউনে ফ্রেঞ্জ ইমিগ্রান্ট Antoine LeBlanc নৃশংস ভাবে হত্যা করে তিনজনকে।নিহত তিনজনের শরীর টুকরো টুকরো করে ঔষধ দিয়ে স্টাফ করে রাখে।পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারের পর বিচারক Antoine LeBlanc কে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেন এবং মৃতদেহ টুকরো টুকরো করার আদেশও দেন।পরে খুনির চামড়া দিয়ে ওয়ালেট এবং পার্স বানানো হয়।

 

human-leather-jaketওয়েস্টকোট: ১৮ শতকে ফ্রান্স রেভুলেশন এর সময় সেইন্ট জাস্ট রোজ (Saint-Just rose) ছিলেন নাম করা রাজনৈতিক নেতা, সামরিক কমান্ডার এবং পাবলিক সেফটি কমিটির প্রভাবশালী সদস্য। দে লা মিউজ (de la Meuse)এর লেখা “Anecdotes” থেকে জানা যায়, একদিন বিরোধী শিবিরের লম্বা, সুন্দর এক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে আনা হয় সেইন্ট জাস্ট রোজ এর সামনে। ঐ নারীর শক্ত ভাষণে রাগান্বিত হয়ে তিনি তাকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেন। শুধু এতেই থামেনি, একজন সার্জন দিয়ে ঐ নারীর শরীরের চামড়া ছাড়িয়ে নেন। পরে ঐ চামড়া দিয়ে একটি ফ্যাশানবল ওয়েস্টকোট বানিয়ে নেন, যেটা তিনি ব্যবহার করেছেন বহুদিন।

 

220px-Case_made_of_Burke's_skinসিগার কেস: উনিশ শতকে ফ্রান্সের অন্যতম সিরিয়াল কিলার হল হেনরি প্রানজিনিকে যখন বিচারের আওতায় আনা হয় তখন সারা দুনিয়ার মানুষের দৃষ্টি ছিল সেই বিচারের দিকে। কথিত আছে, অনেক ধনী ব্যক্তি চেষ্টা চালায় Henri Pranzini এর শরীরের নানা অংশ হস্তগত করতে। সফলও হয় তারা। একজন মহিলা তার দাঁত সংগ্রহ করে তা দিয়ে আংটি বানিয়ে নেয়। আর এক উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তা সংগ্রহ করে Henri Pranzini এর চামড়া। তা দিয়ে ঐ কর্মকর্তা বানিয়ে নেয় একটি সিগার কেস।

 

কলিং কার্ড: স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গের William Burke এবং তার সহযোগী William Hare সতের জন মানুষকে হত্যা করে তাদের শরীরের নানা অংগ প্রত্যঙ্গ ডাক্তারদের কাছে বিক্রি করে দেয়।তাদের পুলিশ গ্রেপ্তার করে বিচারের মুখোমুখি করলে বিচারক William Burke কে ফাঁসির আদেশ দেয়।ফাঁসির পর তার কঙ্কাল দান করা হয় এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের জাদুঘরে। Shoe-man-skinতার চামড়া দিয়ে বানানো হয় পকেট বুকের কভার এবং কলিং কার্ডের কেস।যা বর্তমানে এডিনবার্গ এর রয়েল মাইল পুলিশ তথ্য কেন্দ্রে প্রদর্শনের জন্য রাখা আছে।

জুতা: ১৮৭৬ সালে নিউইয়ারকে বিখ্যাত জুতা প্রস্তুতকারক H&A Mahrenholz এর কর্ণধার Mr. Mahrenholz,যিনি বিভিন্ন সময় নানারকম প্রাণীর চামড়া দিয়ে জুতা বানিয়ে চমকে দিতেন মানুষকে,তিনি এক মানুষের চামড়া দিয়ে বুট বানিয়ে পাঠিয়ে দেন ওয়াশিংটনের Smithsonian Institute এ।সেখানেই প্রদর্শনের জন্য রাখা আছে বুট জোড়া।তবে এখনও জানা যায়নি চামড়াটা কার ছিল।

প্রতিক্ষণ/এডি/পাভেল

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G