যেসব দেশে আত্মহত্যা বেশি

প্রকাশঃ জুন ২৪, ২০১৫ সময়ঃ ১০:৩১ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১০:৩৪ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট, প্রতিক্ষণ ডটকম:

suicideআত্মহত্যা এক অস্বাভাবিক মৃত্যু যা কারো কাম্য নয়। বিশ্বের গতিময়তা ও আধুনিকতার সাথে সাথে আত্মহত্যার প্রবণতাও দিন দিন বেড়ে চলেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেবে, সারা বিশ্বে গড়ে প্রতি ৪০ সেকেন্ডে একজন আত্মহত্যা করে৷ আত্মহত্যা সবচেয়ে বেশি হয় এমন শীর্ষ পাঁচটি দেশের কথা এখানে বলা হলো ৷

গায়ানা

ক্যারিবীয় দেশ গায়ানায় আত্মহত্যার হার সবচেয়ে বেশি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেবে, ২০১২ সালে সেখানকার প্রতি এক লাখ মানুষের মধ্যে ৪৪.২ জন আত্মহত্যা করেছে। প্রচণ্ড দারিদ্র্য, মাত্রাতিরিক্ত অ্যালকোহল সেবন এর কারণ বলে জানা গেছে৷ তরল বিষ পান করেই গায়ানার মানুষ বেশি আত্মহত্যা করেছে।

উত্তর কোরিয়া

তালিকায় গায়ানার পরেই উত্তর কোরিয়ার অবস্থান৷ প্রতি বছর গড়ে সেখানে প্রায় ১০ হাজার মানুষ আত্মহত্যা করে। মানবাধিকার লঙ্ঘন, আর্থিক দৈন্যতা, সরকারি নির্যাতনের ভয় থেকে সৃষ্ট চাপ– এসব কারণে সেদেশের মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

দক্ষিণ কোরিয়া

চাকরির চাহিদা পূরণের চাপ এবং পড়ালেখা ও সামাজিক চাপের কারণে দক্ষিণ কোরীয়রা আত্মহত্যা করে থাকে। বিশেষ করে নভেম্বরে কলেজ ভর্তি পরীক্ষার আগে আত্মহত্যার হার যায় বেড়ে। বিষয়টি এতটাই উদ্বেগজনক যে, সরকার সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোর উপর নজরদারি করে সম্ভাব্য আত্মহত্যা ঠেকানোর পদক্ষেপ নিয়ে থাকে। জাতিসঙ্ঘের হিসেবে ২০১২ সালে সেদেশে এক লাখের মধ্যে ২৮.৯ জন আত্মহত্যা করেছে।

শ্রীলঙ্কা

দক্ষিণ এশিয়ায় শ্রীলঙ্কাতেই সবচেয়ে বেশি মানুষ আত্মহত্যা করে। ২০১২ সালে সে দেশে প্রতি এক লাখের মধ্যে ২৮.৮ জন আত্মহত্যা করে৷ দারিদ্র্য ও বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা এর কারণ বলে জানা গেছে।

লিথুয়েনিয়া

ইউরোপের মধ্যে এই দেশটিতেই আত্মহত্যার সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেবে, ২০১২ সালে লিথুয়েনিয়ার এক লাখ মানুষের মধ্যে ২৮.২ জন আত্মহত্যা করেছে। সামাজিক ও আর্থিক সমস্যাই সেখানকার মানুষের আত্মহত্যার মূল কারণ৷ গত শতকের নব্বইয়ের দশকে দেশটিতে আত্মহত্যার হার আরো বেশি ছিল।

বাংলাদেশের অবস্থান?

জাতিসঙ্ঘের হিসেবে ২০১২ সালে বাংলাদেশের প্রতি এক লাখ মানুষের মধ্যে গড়ে ৭.৮ জন আত্মহত্যা করেছে।এর মধ্যে পুরুষের সংখ্যা ৬.৮, আর নারীর সংখ্যা ৮.৭৷ অর্থাৎ নারীরা পুরুষের চেয়ে বেশি সংখ্যায় আত্মহত্যা করেছে। যদিও জাতিসঙ্ঘের হিসেবে ২০১২ সালে বিশ্বব্যাপী পুরুষদের আত্মহত্যার সংখ্যা মেয়েদের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ বেশি ছিল। সূত্র : ডয়চে ভেলে।

প্রতিক্ষণ/এডি/পাভেল

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G