লেগুনা হেল্পারের হাসি

প্রকাশঃ জুলাই ১৫, ২০১৬ সময়ঃ ৩:০৬ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৩:০৬ অপরাহ্ণ

প্রতিক্ষণ ডেস্কঃ

leguna

রাত তখন ৮টা। ঘরে ফিরছে কর্মক্লান্ত মানুষ। ফার্মগেটের লেগুনা স্ট্যান্ডে তাই প্রচন্ড ভীড়। লেগুনার হেল্পাররা গলা চড়িয়ে ডাকাডাকি করছে, “মোহাম্মদপুর, কৃষি মার্কেট, ৬০ ফিট।” সেই ডাক অনুসরণ করে যে যার গন্তব্য অনুযায়ী লেগুনায় উঠে পড়ছে।

এমনই এক লেগুনার হেল্পার ইসমাইল। বাড়ি মানিকগঞ্জ। বয়স ৮ কি ১০। লেগুনার পাদানিতে ঝুলে ঝুলে যাত্রীদের মোহাম্মদপুর পৌঁছে দিতে ড্রাইভারকে সাহায্য করছে সে।

যাত্রাপথ কিছুটা পারি দেওয়ার পর যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া তুলতে শুরু করলো ইসমাইল। ফার্মগেট থেকে মোহাম্মদপুরের ভাড়া ১০ টাকা। কিন্তু ধবধবে সাদা পাঞ্জাবি পড়া এক প্রৌঢ় ব্যক্তি পাঞ্জাবির পকেট থেকে ৪টি ১০ টাকার নোট বের করে ইসমাইলের হাতে দিল। ইসমাইল প্রথমটা মনে করেছিল লোকটা বোধহয় ভুলে এতগুলো টাকা দিয়ে ফেলেছে। কিন্তু টাকা ফেরত দিতে গেলে সেই প্রৌঢ় ব্যক্তিটি যখন জিজ্ঞেস করলেন, “ভাড়া ৪০ টাকা না?” তখন ইসমাইলসহ লেগুনার সবার ভুল ভাঙ্গলো। লোকটি আসলে ভাড়া জানেই না, যতটুকু বোঝা গেল তিনি দীর্ঘদিন বিদেশে ছিলেন। তাই ভাড়া-টাড়ার ব্যাপারে তেমন ধারণা নেই।

ঘটনাটি এখানেই শেষ হয়ে যেতে পারতো। কিন্তু না। ঘটনার তো মাত্র শুরু। হঠাৎ করে সবাই চমকে উঠলো ইসমাইলের খিলখিল হাসিতে। কী ব্যাপার! নাহ্, তেমন কিছু না। সেই লোক যে ভুল করে ১০ টাকার বদলে ৪০ টাকা দিয়ে ফেলেছিলে সেটা মনে করেই হেসে উঠেছে বাচ্চা ছেলেটি। প্রথম প্রথম বিষয়টা কেউ আমলে নিল না। কিন্তু সময় যত গড়াতে লাগল ইসমাইএর হাসির পরিমাণও তত বাড়তে লাগলো। সে সেই “মহা আনন্দময়” ঘটনা ভুলতেই পারছে না। কেবল হেসেই যাচ্ছে, হেসেই যাচ্ছে। শেষমেষ যাত্রীদের আশংকা হলো, হাসতে হাসতে না এই ছেলে লেগুনা থেকেই পড়ে যায়। কিন্তু কোনমতেই তাকে থামানো গেলো না। সামান্য এই ঘটনাতেই সে ফার্মগেট থেকে মোহাম্মদপুরের পুরো রাস্তাটা হেসে গেলো।

এত তুচ্ছ কারণেও মানুষ এত হাসতে পারে! প্রশ্নটা মনে আসা স্বাভাবিক। কিন্তু কে জানে, এই তুচ্ছ কারণটাই হয়তো ইসমাইলদের মতো শিশু শ্রমিকদের কাছে আনন্দের বিরাট কারণ। কারণ যাদের জীবিকার তাগিদে পড়ার বই আর খেলনা গাড়ি ফেলে আসল গাড়িতে হেল্পারের কাজের মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নামতে হয় তাদের জীবনে নিশ্চয়ই আনন্দের তেমন একটা উপলক্ষ্য আসে না। কিন্তু তবু তারা হাসে, হাসতে ভুলে যায় না। তুচ্ছ সব কারণে হেসেই মনের ভার লাঘব করে নেয়। নাহলে যে বেঁচে থাকাই দায় হয়ে যাবে।

 

 

প্রতিক্ষণ/এডি/সাদিয়া

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

July 2024
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
20G