এইডস ও স্বাস্থ্যসেবায় আন্তর্জাতিক সাহায্য কমেছে

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ১, ২০১৫ সময়ঃ ১:৫৫ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:০৬ অপরাহ্ণ

এঈডশগত কয়েক বছরের তুলনায় বাংলাদেশে এইডস সচেতনতা এবং স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক আন্তর্জাতিক সাহায্য অনেকটাই কমে এসেছে।

এইচআইভি প্রতিরোধে ২০১৪ এবং ২০১৫ সালের জন্য গ্লোবাল ফান্ডের অনুদানের পরিমাণ ছিল ২২ মিলিয়ন ডলার। আগামী ২০১৬ এবং ২০১৭ সালের জন্য যা কমে এসেছে ১২ মিলিয়ন ডলারে। তথ্যটি দিয়েছেন বেসরকারি সংস্থা কেয়ার বাংলাদেশ-এর স্বাস্থ্য বিষয়ক পরিচালক ড. জাহাঙ্গির হোসাইন ।

মি. হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশে এইডস সংক্রমণের হার এবং আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা কম হওয়ার কারণেই আন্তর্জাতিক অনুদানের পরিমাণ কমছে। এইডস মোকাবেলায় সরকারকে এখন আরো দায়িত্ব নিতে উৎসাহিত করেছে দাতা সংস্থাগুলো।

বাংলাদেশে আজ পালিত হচ্ছে বিশ্ব এইডস দিবস। সরকারী হিসেবে বলা হচ্ছে, বাংলাদেশে বর্তমানে এইচআইভি আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা জনসংখ্যার এক শতাংশের কম।

তবে, বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এইডসের ঝুঁকি এখনো ব্যাপকভাবে রয়েছে। কিন্তু তারপরেও এইডস সংক্রান্ত  আন্তর্জাতিক সাহায্যের পরিমাণ কমেছে। যদিও দেশে এখন এইডস বিষয়ক সচেতনতা আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। বেসরকারি ক্লিনিকের পাশাপাশি সরকারী উদ্যোগে বারোটি সরকারী হাসপাতালে এখন এইডস পরীক্ষা করা যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো একযোগে কাজ করলেই এইডস প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে। সেইসাথে সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা আরো বৃদ্ধি পাবে।

প্রতিক্ষণ/এডি/জেবিএম

 

 

 

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G