ঝুঁকি বাড়ছে বিনিয়োগে

প্রকাশঃ মার্চ ২৩, ২০১৫ সময়ঃ ৩:৫৫ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৩:৫৬ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট, প্রতিক্ষণ ডট কম

images (1)পুঁজিবাজার খুবই স্পর্শকাতক স্থান। এই পুঁজিবাজারের উন্নয়নসহ ইতিবাচক গতির স্বার্থে বিনিয়োগকারীদের মনগড়া সিদ্ধান্তের ওপরে বিনিয়োগ করা থেকে বেরিয়ে আসা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন পুঁজিবাজার বিশেষজ্ঞ আবু আহমেদ।

তিনি বলেন, পুঁজিবাজারে শেয়ার দর বাড়তে থাকলে অনেকে তখন শেয়ার কেনার জন্য আগ্রহী হয়ে পড়েন। দর যখন কমতে থাকলে তখন আবার বিক্রি প্রতিযোগিতায় মেতে ওঠেন তারা। এতে পুঁজিবাজারে দরপতন ত্বরান্বিত হয়। এ সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের ভূমিকাও নিস্ক্রিয় হয়ে পড়ে।

এতে করে বিনিয়োগকারীরা নিজের ক্ষতি নিজেরাই ডেকে আনে। আর এ মনগড়া সিদ্ধান্তের বিনিয়োগে ঝুঁকি বাড়ে বলে মনে করেন। তাই পুঁজিবাজারের উন্নয়নসহ ইতিবাচক গতির স্বার্থে বিনিয়োগকারীদের মনগড়া সিদ্ধান্ত রোধ করে ইতিবাচক মনোভাবে বিনিয়োগে করতে হবে। অবশ্য এ সময়ে পুঁজিবাজার ভালভাবে বিশ্লেষন করে বুঝে বিনিয়োগের ওপরে জোর দেন তিনি।

এ বিষয়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) একাধিক কর্মকর্তারা বলেন, পূর্বে পুঁজিবাজারে যেভাবে দরপতন হতো এখনও সেভাবে হচ্ছে। কিন্তু ছোট ও বড় পুঁজির বিনিয়োগকারীদের মনগড়া সিদ্ধান্তের কারণে পতনের ঝুঁকি বাড়ছে বলে জানান। পুঁজিবাজার যখন উর্ধ্বমুখী দিকে যেতে থাকে তখন শেয়ার কেনা আর নিম্নমুখীতে বিক্রি করা মনেভাব রোধ করতে হবে বিনিয়োগকারীদের।

তারা আরো বলেন, বর্তমান পুঁজিবাজারের ধরন বুঝে বিনিয়োগকারীদের লেনদেনের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। অবিবেচকের মতো বাজারে ঢুকলাম আর বের হলাম এতে বিনিয়োগ ঝুঁকি বাড়ে বলে জানান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এমারেন্ড অয়েল, হা-ওয়েল, মতিন স্পিনিং কোম্পানির বেশ কিছু পরিচালকরা শেয়ারনিউজ২৪কে জানান, লেনদেন একটু নিম্নমুখী হলেই বিনিয়োগকারীরা প্যানিক হয়ে যান। এতে বিনিয়োগকারীরা তাদের হাতে থাকা শেয়ার একযোগে বিক্রি শুরু করেন। ফলে বাজারে প্রচুর বিক্রির চাপ বাড়ে।

এতে করে বড় দরপতনের মুখে পড়ে বাজার। সে সময় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরাও পিছু হটে। তারা আরো বলেন, শেয়ারবাজার বিনিয়োগের জায়গা। বিনিয়োগকারীদের পুঁজিবাজার সম্পর্কে প্রয়োজনীয় জ্ঞান থাকাটা জরুরী। ত্বরিৎ মুনাফার জন্য বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়ে বের হলে এবং ঢুকলে ঝুঁকির মাত্রা বাড়ে।

এ বিষয়ে বিনিয়োগকারীদের সর্তক হতে হবে। বর্তমানে বাজার অস্বাভাবিক হওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি। তবে লেনদেন কমে যাওয়ায় অধিকাংশ বিনিয়োগকারী হতাশ হয়ে পড়েন। এতে বাজারে কিছুটা চাপ তৈরি হয়। তবে এটা নিয়ে শঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। তাই বিনিয়োগকারীদের উচিত সিদ্ধান্তহীন আচরণ না করা। বাজারে হুট করে ঢুকে কোনো কারণ ছাড়া আতঙ্কিত হয়ে শেয়ার হাত ছাড়া করা উচিত নয় বলে জানান তারা।

প্রতিক্ষণ/এডি/রবি

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G