দিনমজুরি করেও জিপিএ-৫ পেল আল আমিন

প্রকাশঃ মে ১২, ২০১৬ সময়ঃ ৩:৪৫ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৩:৫১ অপরাহ্ণ

প্রতিক্ষণ ডেস্ক

ss

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের সেই আল আমিন এবার সবাইকে চমকে দিয়ে  বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে। বাবা একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী হওয়া সত্ত্বে তার একার উপার্জনে পাঁচ সদস্যের সংসার কোনোমতে টেনেটুনে চলছিল। ফলে আল আমিনের লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। কিন্তু অদম্য আল আমিন কিছুতেই লেখাপড়া চালিয়ে যেতে পিছপা হয়নি। শত কষ্টের মাঝেও সে চালিয়ে নিয়েছেন তার পড়ালেখা। তাই টাকার অভাবে যখন তার লেখাপড়ার বন্ধ হবার পথে ঠিক সেসময়ে সে বেছে নিল দিনমজুরির কাজ।

সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের ভুবনেশ্বর গ্রামের খোকা মিয়ার ছেলে আল আমিন হক। গ্রামবাসীর কাছ থেকে চাঁদা তুলে ফরম ফিলাপ করেছিল সে। আল আমিনকে নিয়ে গ্রামবাসীও এখন গর্বিত। সবাই বাড়িতে গিয়ে আশীর্বাদ করে আসছেন তাকে।

আল আমিনের পরীক্ষার ফলাফলে গর্বিত কাঁঠালবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাকির হোসেনও। তিনি বলেন, সে সত্যিই একজন প্রতিভাবান ছাত্র। চরম দরিদ্রতার মধ্যে চেষ্টা আর পরিশ্রমের ফলে সে এই সাফল্য পেয়েছে। তাকে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেয়া হলে সে আরো অনেক দূর যেতে পারবে।

নিজস্ব কিছু বলতে, আল আমিনের বাবা খোকা মিয়ার বাড়ি ভিটাসহ ৫ শতক জমি ছাড়া তার কিছুই নেই। এক হাজার টাকা পুঁজি নিয়ে শাকসবজির ব্যবসা করেন কাঁঠালবাড়ী বাজারে। দৈনিক আয় হয় এক থেকে দেড়শ টাকা। এই নিয়েই কোনো মতে টানাটানির মাঝে চলে সংসার।

তিনি জানান, ছেলের পড়াশোনার খরচ তিনি জোটাতে পারেননি। তার অদম্য ইচ্ছের কারণে এই ফলাফল। ছেলে তার অন্যের আলু, ধান, সবজির ক্ষেতে কাজ করে। নিজের উপার্জিত অর্থ দিয়ে পড়ালেখার খরচ চালিয়ে নিয়েছে।

ইচ্ছা থাকলে আল-আমিনের এই সাফল্যের ধারাবাহিকতা কতদূর পযর্ন্ত এগোবে তা নিয়ে সঙ্কায় আছে আল আমিনের বাবা, একটু সহযোগিতা পেলে ভবিষ্যৎতে আরো ভালো কোনো সাফল্যে পৌছাতে পারবে বলে তার ধারণা।

 

প্রতিক্ষণ/এডি/আরএম

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G