পূজার কাপড়কে কেন্দ্র করে স্ত্রীকে হত্যা; লাশ নদীতে

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৭ সময়ঃ ১:০৯ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:০৯ অপরাহ্ণ

মানিকগঞ্জ ঘিওর উপজেলার তেরশ্রী এলাকায় দুর্গাপূজা উপলক্ষে পরিবারের জন্য নতুন জামাকাপড়কে কেন্দ্র করে স্বামী সঞ্জীতকুমার ঘোষ তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে মরদেহ নদীতে ভাসিয়ে দিয়েছেন।

সদর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) হজরত আলী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, আট বছর আগে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার চানদলিয়া গ্রামের কালীপদ ঘোষের মেয়ে কল্পনা রানীর (২৪) সঙ্গে ঘিওর উপজেলার তেরশ্রী গ্রামের মৃত নারায়ণচন্দ্র ঘোষের ছেলে সঞ্জীতকুমার ঘোষের বিয়ে হয়।

গত রোববার বিকেলে দুর্গাপূজা উপলক্ষে পরিবারের জন্য নতুন জামাকাপড় কিনে আনা হয় বাড়িতে। জামাকাপড় স্ত্রীর পছন্দ না হওয়ায় উভয়ের মধ্যে ঝগড়া হয়।

একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে গভীর রাতে তাকে গলা টিপে হত্যা করে তার মরদেহ অটোরিকশায় করে ঘিওর পশু হাসপাতাল সংলগ্ন বেইলি ব্রিজ থেকে ধলেশ্বরী নদীতে ফেলে দেয়। পরের দিন স্বামী তার স্ত্রী নিখোঁজ হয়েছে এই মর্মে ঘিওর থানায় জিডি করেন। জিডি তদন্তের একপর্যায়ে হত্যার ঘটনাটি ফাঁস হয়ে যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঘিওর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, সঞ্জীতকুমার ঘোষ, ও তার মাকে নাগরপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তেরশ্রী থেকে তার বন্ধু নির্মল সাহা, চিত্ত ঘোষ ও বদ্দো সাহাকে আটক করা হয়েছে। রহস্য উদঘাটনের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় আরও তথ্য উদ্ধারের জোর তৎপরতা চলছে বলেও জানান ওসি।

প্রতিক্ষণ/এডি/শাআ

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

February 2024
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  
20G