অঘটন : স্পেনকে হারিয়ে জাপান শেষ ১৬-তে

প্রথম প্রকাশঃ ডিসেম্বর ২, ২০২২ সময়ঃ ২:৫৯ পূর্বাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৪:২৮ পূর্বাহ্ণ

ক্রীড়া ডেস্ক

কাতার বিশ্বকাপে এশিয়ার প্রথম দল হিসেবে জাপান নাম লেখালো শেষ ১৬-তে। ই-গ্রুপে জার্মানিকে ২-১ গোলে হারিয়ে চমক দেখানো জাপান আজও নতুন করে চমক দেখালো স্পেনের বিপক্ষে। ১ গোলে পেছনে থেকে দ্বিতীয়ার্ধে ৪৮ মিনিটে আর ৫১ মিনিটে পর পর দুই গোল দিয়ে স্পেনকে হারিয়ে গ্রুপ সেরা!

হেরেও বিশ্বকাপ থেকে বিদায় হওয়া থেকে বেঁচে গেল স্পেন গোল ব্যবধানে। কারণ এই গ্রুপে অপর শক্তিশালী দল জার্মানি ১ হার ও ১ ড্র নিয়ে আজ কোষ্টারিকাকে হারিয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়েও গোল ব্যবধানে স্পেনের চেয়ে অনেকটা পিছিয়ে ছিল। তাই চার বারের বিশ্বকাপ জেতা জার্মানি বিদায় নিতে বাধ্য হলো।

ম্যাচের ১১ মিনিটেই শক্তিশালী স্পেন মোরাটার গেলে এগিয়ে গেল। প্রধমার্ধে গোল পরিশোধের চেষ্টায় বিফল হলো এশিয়ার জায়েন্ট খ্যাত জাপান। জার্মানিকে ২-১ গোলে হারিয়ে বিশ্বকে চমকে দেয়া জাপান দ্বিতীয়ার্ধের শুরুটা করে দুর্দান্ত প্রতাপের সাথেই। ১ জয় আর ১ ড্র নিয়ে ৪ পয়েন্ট থাকা স্পেনের আজ ড্র করতে পারলেই শেষ ১৬-তে জায়গা নিশ্চিত হয়ে যেত। সে হিসেবটা মাথায় রেখে দ্বিতীয়ার্ধে খেললেও স্পেন হয়তো ভূলে গিয়েছিল দলটির নাম জাপান।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর ৩ মিনিটে ম্যাচের ৪৮ মিনিটে স্পেনের ডি-বক্সে বল পেয়ে জাপানের ৮ নম্বর জার্সিধারি ডোয়া একা দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে কিক নিলে বল স্পেনের গোলরক্ষকের হাত স্পর্শ করে জালে
আশ্রয় নেয় (১-১)। কিন্তু পর ছিল আরো বড় চমক।

ম্যাচের ৫১ মিনিটে সেই ডোয়া আবারো একক চেষ্টায় তিন জনকে কাটিয়ে বল স্পেনের গোল বারের ডান দিক থেকে মাইনাস করলে বল গোলরক্ষেকের হাতে আঘাত করে পোষ্ট থেকে সামান্য বাইরে চলে যাচ্ছিল,
সে সময় গোল লাইন থেকে বল ক্রস করলেন ২২ নম্বর জার্সিধারি মায়া, খালি পোষ্টে বলে ধাক্কা দিলেন জাপানের ১৭ নম্বর জার্সিধারি তানাকা, বল ভেতরে ঢুকে গেল। বল জালে, জাপানিরা বাঁধ ভাঙ্গা জোড়ারের মতো আনন্দ করছে। কিন্তু রেফারি গোল বাতিলের ঘোষণা দেলে হতভম্ব পুরো স্টেডিয়াম, কেন?
এরপর টানা ৩ মিনিট ভিডিও রিপ্লেতে গোলটি বার বার দেখা হলো, তারপর গোলের ঘোষণা বহাল থাকল (২-১)।

দ্বিতীয়ার্ধে জাপান যেভাবে চেপে ধরেছিল স্পেনকে তাতে মনে হয়নি ইউরোপের ফিফার ৭ নম্বর র‌্যাঙ্কিংয়ের দল এটি। অথচ জাপান ফিফার তালিকায় আছে ২৪ নম্বরে! গতি বা টেকনিক কোনটাইতেই পেছনে ছিল না জাপান। যে কারণে ৭০ মিনিটে কাউন্টার এ্যাটাকে ১৮ নম্বর জার্সিধারি জাপানের আসানো দূর থেকে লস্বা কিক স্পেনের ফাঁকা পোষ্টেও বাইরে গেল!

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের ২৫ মিনিটে (ম্যাচের ৭০ মিনিট) স্পেন চেপে ধরে জাপানকে। ৮৮ মিনিটে নিশ্চিত গোল মিস। আর ৯০ মিনিটে গোল গহম থেকে জাপানকে বাঁচালো গোলরক্ষক। কিন্ত শেষ পর্যন্ত আর ম্যাচে ফেরা সম্ভব হয়নি স্পেনের।

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

20G