ব্যাচেলরদের “সুপার হোস্টেল”এখন থেকে “সুপারহোম”

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ১, ২০১৯ সময়ঃ ৫:৫৫ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৫:৫৭ অপরাহ্ণ

ঘরোয়া পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে ব্যাচেলর নারী-পুরুষদের জন্য তৈরি হওয়া “সুপার হোস্টেল” এর নাম পরিবর্তন করে এখন রাখা হয়েছে “সুপারহোম”। বাংলাদেশে এটিই প্রথম ব্যাচেলরদের জন্য মানসম্মত আবাসন ব্যবস্থা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এ কোম্পানির সুপার হোস্টেলে (সাকুরা রেস্টুরেন্টের পেছনে) এক ‘মিট দ্যা প্রেস’ অনুষ্ঠানে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই সেবার নাম ও লোগো পরিবর্তন করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সুপার হোস্টেলের তত্ত্বাবধান প্রতিষ্ঠান নিউওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানী লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ঝ্যাং লি গুয়াং এবং প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা ঝ্যাং জিমিন। উপস্থিত ছিলেন সুপার হোস্টেলের জেনারেল ম্যানেজার রাসেল কবির।

নানা ঝামেলার কারণে ঢাকা শহরে ব্যাচেলরদের বাসা পাওয়া থেকে শুরু করে খাওয়া-দাওয়ার অসুবিধায় পরতে হয়। ব্যাচেলর ছেলে হোক কিংবা মেয়ে, বিশেষ করে মফস্বল থেকে ঢাকায় পড়াশোনা অথবা চাকরির জন্য আসা ব্যাচেলরদের থাকার জায়গা বা বাসা ভাড়া নেওয়া, একটা বিশাল সমস্যা। তাদের কাছে বাসা ভাড়া যেন সোনার হরিণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এই বিড়ম্বনা থেকে বাঁচতে সমাজের বর্তমান পরিস্থিতি এবং ব্যাচেলরদের ঝামেলামুক্ত জীবনের জন্য বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আর্ন্তজাতিকমানের সুবিধা নিয়ে তৈরি হয়েছে সুপারহোম যা রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অবস্থিত। এর তত্ত্বাবধানে আছে নিউওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানী লিমিটেডের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক মিষ্টার ঝ্যাং লি গুয়াং এবং প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা মিষ্টার ঝ্যাং জিমিন ।

ছাত্রছাত্রী ও চাকুরিজীবী ব্যাচেলরদের জন্য শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত শোবার ঘর, মাল্টিফাংশনাল বেড, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন মনোরম তিনবেলা স্বাস্থ্যসম্মত গরম খাবার, জিমনেশিয়াম, ওয়াশিং মেশিন ও ড্রাইয়ার, হাইস্পিড ইন্টারনেট, এলইডি টিভি, কমন রুম ও রিডিং রুম, ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তা ব্যবস্থা, নিরবিচ্ছন্ন বিদ্যুৎ এর জন্য জেনারেটর, ফোর-স্টার মানের লবিসহ রয়েছে সর্বমোট ২৫টিরও অধিক সুবিধা । বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটি ছেলেদের জন্য উত্তরা, বারিধারা, মধ্যবাড্ডা, মিরপুর ও শাহবাগে পাঁচটি শাখা এবং মেয়েদের জন্য মিরপুরে একটি শাখা চালু করেছে।

এতে স্ট্যান্ডার্ড ক্লাস ৬ হাজার ৯৯৯ টাকা, বিজনেস ক্লাস ৭ হাজার ৯৯৯ টাকায় এবং ফাস্টক্লাস ৮ হাজার ৯৯৯ টাকায় ব্যাচেলররা থাকার সুযোগ পাবেন। প্রতিষ্ঠানটির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার জনাব রাসেল কবির বলেন, ব্যাচেলরদের দুর্বিষহ জীবন থেকে রক্ষা করতে নিউওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি লিমিটেড নিয়ে এসেছে বাংলাদেশে প্রথম আন্তর্জাতিক মানের আবাসন সেবা।

নানান ঝামেলার কারণে বাসা পাওয়া থেকে শুরু করে খাওয়া-দাওয়ায় অসুবিধায় ভুগতে হয় এই শহরের ব্যাচেলরদের। মেয়েই হোক কিংবা ছেলে, বিশেষ করে মফস্বল থেকে ঢাকায় পড়াশোনা অথবা চাকরির জন্য আসা ব্যাচেলরদের থাকার জায়গা বা বাসা ভাড়া পাওয়াটা দীর্ঘদিনের সমস্যা যা নিয়ে কেউ কখনোও চিন্তা করেনি। বিভিন্ন কারণে তাদের কাছে বাসা ভাড়া নেওয়া যেন সোনার হরিণ পাওয়ার মতো।

এই সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যেই বাংলাদেশে প্রথম আর্ন্তজাতিক মানের আবাসন ব্যবস্থা তৈরি হয়েছে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়। নিউওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানী লিমিটেডের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার জনাব রাসেল কবির আরও জানান, এখানে না আছে বাজার করার দুশ্চিন্তা, না আছে কাপড় ধোয়ার ঝামেলা, এমনকি বাসা পরিবর্তনের ঝক্কি-ঝামেলাও পোহাতে হবে না। একটি ফর্ম পূরণের মাধ্যমেই খুব সহজে এর এক শাখা থেকে অপর আরেকটি শাখায় যাওয়া যাবে।

বুকিং এর জন্য যোগাযোগ করতে পারেন ০৯৬৩৮৬৬৬৩৩৩ এই নম্বরে।

প্রতিক্ষণ/এডি/শাআ

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০১৯
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« নভেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
20G