মুক্তিযোদ্ধাদের পাঁচ বছর মেয়াদী ভিসা দেয়া হচ্ছে ভারতে

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯ সময়ঃ ২:২৪ অপরাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:২৪ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশে ভারতের হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি বলেন,   মুক্তিযোদ্ধাদের পাঁচ বছর মেয়াদী ভিসা দেয়া হচ্ছে।   এখন ঈদ বা বিয়ের সময় অনেকে ভারতে কেনাকাটা করতে যান। এছাড়া, ব্যবসা, চিকিৎসা, ভ্রমণ, শিক্ষাসহ নানা কারণেই বাংলাদেশ থেকে বিপুলসংখ্যক লোক বন্ধুদেশ ভারতে যাচ্ছেন। প্রতিবছর এ সংখ্যা বাড়ছে। প্রতিদিনই ভারতীয় ভিসার জন্য মানুষের আবেদন জমা পড়ছে। 

বিদায়ী ২০১৯ সালে ১৫ লাখ বাংলাদেশিকে ভারতীয় ভিসা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে ভারতের হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ। প্রতিবেশী দেশের মানুষকে দেয়া এই ভিসার বিনিময়ে ভারতও অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হচ্ছে বলে মনে করেন তিনি।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কে ভারতীয় ভিসা সেন্টারে তিনজন মুক্তিযোদ্ধার হাতে ভারতীয় ভিসা তুলে দিয়ে হাইকমিশনার এ কথা বলেন। ভিসাপ্রাপ্ত তিন মুক্তিযোদ্ধা হলেন- ড. মো. শহীদুল ইসলাম, ড. নূর মোহম্মদ মল্লিক ও মো. আতিয়ার রহমান। হাইকমিশনের অন্যান্য কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

রীভা গাঙ্গুলি বলেন, এখন বাংলাদেশিদের জন্য সিকিম ভ্রমণ উন্মুক্ত করা হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশ থেকে সবচেয়ে কাছে হিমালয়ের বরফ দেখার সুর্বণ সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

বাংলাদেশে ১৫টি ভারতীয় ভিসা সেন্টার খোলা হয়েছে উল্লেখ করে রীভা গাঙ্গুলি বলেন, এর সুফলও আমরা দেখতে পাচ্ছি। কয়েক বছর আগে সাত থেকে আট লাখ ভিসা দেওয়া হতো। এখন তা ১৫ লাখে পৌঁছেছে। এটাই এক বছরে এত ভারতীয় ভিসা দেয়ার রেকর্ড। তাই এ বছরকে স্মরণীয় করে রাখতে এ বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে ভারতীয় ভিসা সেন্টার।

ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, দু’দেশের মানুষে মানুষে যোগাযোগ খুব দরকার। সেটা এখন অনেকটা বেড়েছে। ভারতীয় ভিসা সহজ করতে পারায় আমরাও খুশি।

ভারতীয় ভিসা প্রক্রিয়া সহজ হয়ে যাওয়ায় প্রতিবছরই ভারতে বাংলাদেশিদের ভ্রমণ বাড়ছে। ভারতীয় হাইকমিশনের হিসাব অনুযায়ী, ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত ১ কোটি ৩৭ লাখ ৩০ হাজার ২৮২ বিদেশি ভারত ভ্রমণ করেছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশির সংখ্যা ছিল ২৮ লাখ ৭৬ হাজার। একই সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের ১৮ লাখ ৬৩ হাজার ২৭৮, যুক্তরাজ্যের ১৩ লাখ ৬৯ হাজার ৫৪৮, কানাডার চার লাখ ৭৮ হাজার ২২৮, শ্রীলংকার চার লাখ ৫১ হাজার ৭৩৬, অস্ট্রেলিয়ার চার লাখ ৪৪ হাজার ৩৩, মালয়েশিয়ার চার লাখ ১১ হাজার ৫০, রাশিয়ার তিন লাখ ৭৭ হাজার ৮৩, চীনের তিন লাখ ৭৫ হাজার ৪৪৯ এবং জার্মানির তিন লাখ ৬০ হাজার ৮৪৩ নাগরিক ভারত ভ্রমণ করেন।

ভারতে মোট বিদেশি পর্যটকের ৬৫ দশমিক ৬১ শতাংশই বাংলাদেশি। ভারত ভ্রমণকারী বিদেশির সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশ শীর্ষে আসে ২০১৫ সালে। এর আগে ২০১৪ সালে দ্বিতীয় এবং ২০১৩ ও ২০১২ সালে তৃতীয় অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ।

প্রতিক্ষণ/এডি/শাআ

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য



আর্কাইভ

জানুয়ারি ২০২০
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« ডিসেম্বর    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
20G