নারীর সাজে রূপার গয়না

প্রথম প্রকাশঃ মার্চ ১৮, ২০১৫ সময়ঃ ১০:৪১ পূর্বাহ্ণ.. সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট, প্রতিক্ষণ ডট কম

imagesবেশ কিছু বছর আগে গ্রামবাংলার নারীর সাজে শোভা পেত রূপার বাহারি মল, হাতে বাজু আর কোমরে বিছা। স্টাইলিশ নারীদের কাছে স্বর্ণের বিপরীতে এর গুরুত্ব ছিলো কম।

কিন্তু সময়ের পরিবর্তনে রূপার গয়নার ডিজাইনে এসেছে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন। ঐতিহ্যবাহী রূপার গয়না গ্রামবাংলার গণ্ডি পেরিয়ে প্রভাব বিস্তার করেছে হাল ফ্যাশনের জগতে।

রূপার গোল্ডপ্লেটেড পাথর বসানো আংটি, চুড়ি, ব্রেসলেট, রূপার মল, গলার হার ইত্যাদির ব্যবহার বেড়ে চলেছে। বাজারে অক্সিডাইজ রঙের রূপার মলের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। ফ্যাশন-সচেতন নারীদের কাছে রূপার গয়না এখন পছন্দের তালিকায় প্রথম সারিতে। নারী ক্রেতাদের পাশাপাশি পুরুষের কাছেও রূপার ব্রেসলেট ও কানের রিং পাচ্ছে সমান জনপ্রিয়তা।

ডিজাইন ও আকার ভেদে প্রতিটি রূপার  নাকফুলের দাম পড়বে ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা। কানের দুল ৬০০ থেকে ১ হাজার টাকা। বালা ২ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা। টিকলি দেড় হাজার থেকে ৩ হাজার টাকা।

ব্রেসলেট ১ হাজার থেকে ২ হাজার টাকা, খাড়ু ও বাজু ২ হাজার থেকে ৭ হাজার টাকা, মাদুলি সেট আড়াই হাজার থেকে ৪ হাজার টাকা। গয়নার সেট কিনতে খরচ হবে দশ হাজার থেকে পনের হাজার টাকার মধ্যে । তবে জাঁকজমকপূর্ণ গয়নার সেট কিনতে হলে খরচ করতে হবে ৫০ হাজার টাকার বেশি।

আধুনিক ডিজাইনের রূপার গয়নার বিশাল সংগ্রহ রয়েছে ফ্যাশন হাউস আড়ং,অঞ্জন’স সহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজের শোরুমে।

s-l1000

রূপার  মল, নাকফুল, আংটি, চুড়ি, ব্রেসলেট থেকে শুরু করে গলার হার পর্যন্ত নানা নকশার গয়না পাওয়া যাবে এসব জায়গায়। বসুন্ধরা শপিং মল ছাড়াও বড় বড় শপিং মলগুলোতে পাওয়া যাবে রূপার গয়না।বারবার ব্যবহারের ফলে রং পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে রূপার।

বা দাগ পড়ে চকচকে ভাব নষ্ট হয়ে যেতেও পারে। রূপার গহনার দেখভাল করে কঠিন না। তাই সামান্য খাটুনিতেই যত্নে রাখা যায় রূপার গয়না।

– রূপার লালচে ভাব তুলতে পানিতে লবন ও খাবার সোডা মিশিয়ে গহনাকে ২ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এরপর ব্রাশ দিয়ে হালকা পরিস্কার করে শুকনা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন। দেখবেন লালচে ভাব কেটে গেছে।

– রূপার গহনার উপর টমেটো ক্যাচাপ দিয়ে ১৫ মিনিট রেখে নরম কাপড় দিয়ে আলতো ভাবে ঘষে নিয়ে পানি দিয়ে ধুয়েও পরিষ্কার করা যায়।

– রূপার কালচে ভাব দূর করার জন্য চুলের কন্ডিশনার খুব ভালো মাধ্যম। তাছাড়া তেঁতুল দিয়ে ঘষেও চকচকে করা যায়।

– অল্প পরিমাণে টুথপেস্ট নিয়ে রূপার ওপর কিছুক্ষণ রেখে তা হালকা ভাবে ঘষেও উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনা যায়।

– এক চামচ লেবুর রস ও দেড় কাপ পানির মিশ্রণে রূপা সারা রাত ভিজিয়ে রাখলে কালচে ভাব দূর হবে।

– সোনার গহনার বাক্সে রুপার গহনা রাখা ঠিক নয় এতে রুপার রঙ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

 

প্রতিক্ষণ/এডি/রবি

আরো সংবাদঃ

মন্তব্য করুনঃ

পাঠকের মন্তব্য

0cc0